বিজেপির সঙ্গে এবার তৃণমূলেরও ‘চায় পে চর্চা’

208

পুরাতন মালদা: বিজেপির সঙ্গে এবার তৃণমূলেরও ‘চায় পে চর্চা’! শনিবার সেই দৃশ্যের সাক্ষী থাকল পুরাতন মালদা পুরসভার ১৫ ও ১৮ নম্বর ওয়ার্ড৷ দুই ওয়ার্ডের সংযোগস্থল, সদরঘাট মোড়ে ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে যখন ‘চায় পে চর্চা’র আসর বসিয়েছে বিজেপি, তখন উলটো দিকে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে চায়ের আসর বসিয়েছে তৃণমূলও।

এদিকে, বিজেপির ‘চায় পে চর্চা’ কর্মসূচির ঠিক উলটো দিকে চায়ের আসর বসায় তৃণমূলও৷ এনিয়ে সাংসদ খগেন মুর্মু বলেন, ‘বিজেপি সব জায়গায় ‘চায় পে চর্চা’র মাধ্যমে মানুষের অভাব অভিযোগ জানার চেষ্টা করছে৷ আর তৃণমূল বিজেপির পিছনে লেগে গণ্ডগোল বাধানোর চেষ্টা করছে৷ এখানেও সেই ঘটনা ঘটেছে৷ অথচ তৃণমূল কোনওদিন চা চক্র করে না৷ গোলমাল পাকানোর জন্য এরা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই কাজ করা হয়েছে৷’

- Advertisement -

এই ঘটনা প্রসঙ্গে পুরাতন মালদা পুরসভার প্রশাসক কার্তিক ঘোষ বলেন, ‘পুরাতন মালদা পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে প্রতিদিন সকালে আমরা নিয়মিত চায়ের আসর করে থাকি৷ এটা আমাদের রুটিন৷ বিজেপির কিছু পরিযায়ী পাখি ভোটের সময় হেলিকপ্টারে এসে লোক দেখানো এই কর্মসূচি করছে৷ ভোট পেরোতেই এদের আর দেখা মিলবে না৷ সারাবছর মানুষের পাশে যদি কেউ থাকে, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷’