পূর্বস্থলীতে বিজেপির পালটা তৃণমূলের সভায় উপচে পড়ল কর্মী-সমর্থকদের ভিড়

366

বর্ধমান: এযেন একেবারে ডার্বি সভা। কলকাতার ময়দানে ফুটবলের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগান আর ইস্টবেঙ্গল মুখোমুখি হলেই উন্মাদনা ও উত্তেজনায় ভাসেন সমর্থকরা। ঠিক একই উন্মাদনা এখন পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলী উত্তর বিধানসভা আসনের তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী, সমর্থক ও নেতৃত্বের মধ্যে। রাজ্যের রাজ্যনৈতিক মহলের নজরও রয়েছে সেই পূর্বস্থলীর দিকেই।

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর গত ২২ ডিসেম্বর পূর্বস্থলীর মাঠে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিজেপি নেতা হিসাবে অভিষেক হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীর। সেই বিশ্বরম্ভা ফুটবল ময়দানে বৃহস্পতিবার জনসভার আয়োজন করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এদিনের জনসভায় বক্তা হিসেবে অভিষেক ঘটছে সদ্য বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া বিজেপি সাংসদের স্ত্রী সুজাতা মণ্ডল খাঁ-র।

- Advertisement -

পূর্বস্থলীতে বিজেপির পালটা তৃণমূলের সভায় উপচে পড়ল কর্মী-সমর্থকদের ভিড়| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

পূর্বস্থলীর মাঠে গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত জনসভায় শুভেন্দু অধিকারীর বক্তব্য শোনার জন্য বিজেপি শিবিরে উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো। রাজনৈতিক মহলের দাবি বিগত এক দশকে পূর্বস্থলীর মানুষ বিরোধীদের এত স্বতঃস্ফূর্ত সভা দেখেননি। ওইদিনই জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে বেনজির আক্রমণ করেছিলেন শুভেন্দু। তৃণমূলের কর্মী ও সমর্থকরাও চেয়েছেন এদিন একই কায়দায় বিজেপির উদ্দেশে আক্রমণ করবে সুজাতা মণ্ডল খাঁ, তৃণমূল কংগ্রেস দলের রাজ্য মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য সহ দলের অন্য নেতারা।

সভা শুরুর আগে রাজ্যের মন্ত্রী তথা পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূলের সভাপতি স্বপন দেবনাথ বলেন, ‘পূর্বস্থলী উত্তর ও দক্ষিণ এই দুই বিধানসভা এলাকার লোকজনই মাঠ ভরিয়ে দিয়েছেন। মাঠ ভরানোর জন্য অন্য বিধানসভা বা অন্য জেলা থেকে আমাদের লোক আনতে হয়নি। পূর্বস্থলীর জনগণই এদিন বিজেপিকে দেখিয়ে দিয়েছেন তাঁরা এখনও তৃণমূলের সঙ্গেই রয়েছেন। মমতা দিদির সঙ্গেই আছেন। বিজেপির পক্ষে পূর্বস্থলীর জনগণ কোনও দিন ছিলেন না আগামী দিনেও থাকবেন না।’ পূর্বস্থলীর মানুষ আরও একবার সেটা প্রমাণ করে দিয়েছেন বলে দাবি স্বপনবাবুর।