প্রধানমন্ত্রীকে ডোঙ্গি বাবা বলে কটাক্ষ ভি শিবদাসনের

96

আসানসোল: জেলার ৯ প্রার্থীর সমর্থনে শনিবার জামুরিয়ায় আয়োজিত নির্বাচনি জনসভা থেকে বেআইনি কয়লা কারবার সহ নানা ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে সেই পাল্টা আক্রমন শানাল তৃণমূল কংগ্রেস। রবিবার দুপুরে আসানসোলের জিটি রোডের বড় পোস্ট অফিস লাগোয়া জেলা কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বেনজির আক্রমন করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক ভি শিবদাসন ওরফে দাসু। এদিন তিনি বলেন, ‘দেশের প্রধানমন্ত্রী এখন ডোঙ্গি বাবা। দাঁড়ি রাখলেই তো সাধু হওয়া যায় না। আমি দলের রাজ্য সম্পাদক। দলের চেয়ারপার্সেনকে যে যেমন ভাষায় আক্রমন করবে, আমরা তাঁকে সেই ভাষাতেই আক্রমন করব। যিনি নিজের ঘর সংসার করেন না। স্ত্রী‘কে নিজের কাছে রাখতে পারেন না। তিনি কি করে দেশের মহিলাদের সম্মান করবেন? আমরা তাঁর কাছে তা আশাও করি না।’

এদিনের সাংবাদিক সম্মেলন থেকে কেন্দ্রের শাসকদলকে আক্রমন করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সহ গোটা বিজেপি দল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভয় পাচ্ছেন। কেননা তিনি একমাত্র কেন্দ্র সরকারের জনবিরোধী নীতির সমালোচনা করেন। তাই বাংলার নির্বাচনে একা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারানোর জন্য ১৬২ জন আসছেন। দেশের করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ। সেই দিকে কেন্দ্র সরকারের কোনও নজর নেই। প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সবাই বাংলায় দিনরাত পড়ে রয়েছেন। এইসব ভিন রাজ্যের বিজেপি নেতাদের জন্যই বাংলায় করোনা ছড়িয়েছে।’

- Advertisement -

শনিবার প্রধানমন্ত্রী জনসভা থেকে দাঙ্গা ও কয়লা কারবার ও মাফিয়া রাজ নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করেছিলেন। সেই প্রসঙ্গে ভি শিবদাসন ওরফে দাসু এদিন পাল্টা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর দুই পাশে মঞ্চে কারা ছিলেন? সবাই তাঁদেরকে দেখেছেন। বিজেপির দুই প্রার্থী, যারা আগে তৃণমূল কংগ্রেসে ছিলেন। তাঁরা কি? দুজনেই বেআইনি কয়লার টাকা তুলেছে। একজন তো আবার দাঙ্গায় উসকানি দিয়েছিল। তাঁরা এখন তৃণমূল কংগ্রেসের সমালোচনা করছে। মানুষ সব দেখছে। ২ মে এরা সবাই জবাব পেয়ে যাবে।’