খাসজমিতে তৈরি হচ্ছে তৃণমূলের পার্টি অফিস

দিলীপকুমার তালুকদার, বুনিয়াদপুর : রীতিমতো পিলার গেঁথে ইট, বালি, সিমেন্ট দিয়ে পাকা বাড়ি তৈরি হচ্ছে সরকারি খাসজমির ওপর। তবে সরকারি কোনও অফিস নয়, খাসজমিতে পাকা পার্টি অফিস বানাচ্ছেন রাজ্যের শাসক দলের সংখ্যালঘু সেলের নেতা। সরকারি জমি দখলের অভিযোগ উড়িয়ে দিলেও খাসজমির ওপরেই যে দলীয় অফিস তৈরি হচ্ছে, তা মেনে নিয়েছেন তিনি। তবে তাঁর যুক্তি, অনেকে ওই সরকারি জমি দখল করার চেষ্টা করছে। তাই জমি বাঁচাতেই মাত্র দেড় শতক জমির ওপর পার্টি অফিস তৈরি করা হচ্ছে। এই অভিযোগকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বংশীহারীর এলাহাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের নূরপুর এলাকায়। বংশীহারীর বিডিও সুদেষ্ণা পাল বিষয়টি নিয়ে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন।

নূরপুরে পাকা রাস্তার ধারে প্রায় ২ শতক সরকারি খাসজমির ওপর তৃণমূলের কার্যালয় তৈরির কাজ চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রায় ৮ বছর আগে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল জেলা পরিষদের একটি ইটভাটা। অভিযোগ, পরিত্যক্ত সেই ইটভাটার ইট দিয়ে তৃণমূলের অফিস তৈরির কাজ চলছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, এভাবে সরকারি জমি দখল করে অন্যায়ভাবে তৃণমূল কর্মীরা দলীয় কার্যালয় নির্মাণ করছেন। আর দলীয় কার্যালয় তৈরিতে প্রধান ভূমিকা নিয়েছেন বংশীহারী তৃণমূল সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি আসগর আলি। এপ্রসঙ্গে বংশীহারী সিপিএমের এরিয়া কমিটির সম্পাদক মোসাদ্দেক হোসেন বলেন, খাসজমি দখল করে পার্টি অফিস তৈরি করা অন্যায়। পরিত্যক্ত ইটভাটায় পড়ে থাকা ইটগুলি দিয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতারা সরকারি জমিতে পার্টি অফিস তৈরি করছেন। এই জমানায় সারা রাজ্যেই তৃণমূলের নেতাকর্মীরা লুঠ করে খাচ্ছেন। নূরপুরও এর ব্যতিক্রম নয়। এই সরকারের আমলে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের সাতখুন মাফ।

- Advertisement -

বংশীহারী তৃণমূল সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি আসগর আলি বলেন, প্রায় ১২ শতক খাসজমি অনেকেই দখল করতে চাইছিল। তাদের দখল রুখতে মাত্র দেড় শতক জমির ওপর পার্টি অফিস তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়া স্থানীয়রা পরিত্যক্ত ইটভাটার জমি খুঁড়ে কিছু ইট উদ্ধার করে। তারাই ইটগুলি পার্টি অফিস তৈরি করতে দান করেছেন। আমি একটাই কথা বলব, অভিযোগ সত্যি নয়। বংশীহারী বিডিও সুদেষ্ণা পাল বলেন, জমিটির চরিত্র যাচাই করার জন্য বিএলএলআরওকে বলব। যদি অভিযোগ সত্যি হয়, তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব। তৃণমূলের ব্লক প্রেসিডেন্ট সত্যেন্দ্রনাথ রায় বলেন, আমি বাইরে আছি। খোঁজ নিয়ে দেখব। যদি সত্যিই সরকারি জমির দখল করা হয়ে থাকে, তবে তা অন্যায় হয়েছে। আমি দলীয় স্তরে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।