উত্তরাখণ্ড থেকে মশাল যাত্রা পৌঁছোল ফরাক্কায়

74

ফরাক্কা: ‘জলতি রহে দিলো মে নদী সংরকছন  কি লোও’ এই স্লোগানে গত ৮ নভেম্বর মশাল যাত্রা শুরু হয়েছিল উত্তরাখণ্ড ঋষিকেশ থেকে। উদ্দেশ্য ছিল নদী স্বচ্ছ রাখা, নদীর প্রবাহ ধারায় মাছ ডলফিন সহ যে সমস্ত জলজ প্রাণী রয়েছে তাদের বিচরণের পথ সুগম রাখা এবং নদী দূষণ মুক্ত করা। সেই লক্ষ্যেই টিম ক্যাপ্টেন মেজর এল.এন. যোশীর হাত ধরে উত্তরাখণ্ড থেকে রওনা দিয়ে উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খন্ডের মধ্য দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের ফরাক্কার গান্ধীঘাটে এসে হাজির হয় তারা। এই মশাল যাত্রা ধীরে ধীরে পশ্চিমবঙ্গের বকখালির মোহনায় গিয়ে শেষ হবে আগামী ২৬ নভেম্বর। মশাল যাত্রা ফরাক্কা গান্ধীঘাটে এসে পৌঁছোলে সেখানে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। পরে শুরু হয় গঙ্গা এবং মশাল আরতি। উপস্থিত ছিলেন একাধিক বিশিষ্টজনেরা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত এন.এম.জি.সি.এর বিভাগীয় প্রতিনিধি সন্দীপ বেহেরা বলেন, ‘আজকের এত মানুষের উপস্থিতি সার্থক করে তুলেছে অনুষ্ঠানকে। সবাই মিলে শপথ নিন নদী সংরক্ষণ করব। এতে করে একদিকে যেমন মৎস্যজীবীরা উপকৃত  হবেন অন্যদিকে বিভিন্ন মাছের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। ফরাক্কা ব্যারেজ প্রজেক্টের জেনারেল ম্যানেজার রঙ্গস্বামী আজাগেসন বলেন, ‘যেমন করেই হোক নদীকে দূষণমুক্ত করতে হবে। আমাদের প্রধান কর্তব্য প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করা।‘

- Advertisement -