সংরক্ষিত বনাঞ্চলে বাড়ছে ফটোশুটের প্রবনতা, বন্যপ্রাণী আক্রমণের আশঙ্কা

81

গয়েরকাটা: সংরক্ষিত বনাঞ্চলে মানুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ হলেও উঠতি বয়সি ইউটিউবার বা ফটোশুট প্রেমী যুবক যুবতীদের আনাগোনায় বাড়ছে বন্যপ্রাণীদের আক্রমণের আশঙ্কা। জঙ্গলের মধ্যে নিজেদের সুন্দর ছবি বা ভিডিও ক্যামেরাবন্দী করতে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় খ্যাতি অর্জন করার তাগিদে অনেকে জঙ্গলমুখী হচ্ছে। বর্তমানে জলপাইগুড়ি বন বিভাগের মোরাঘাট বনাঞ্চলে এই ট্রেন্ড বেশি লক্ষ্য করায় বন্যপ্রাণী আক্রমণের আশঙ্কা বোধ করছেন পরিবেশপ্রেমীরা। বিষয়টি মেনে নিয়েছে বন দপ্তরও। তাই বনাঞ্চলের ভেতর নিরাপত্তা বাড়িয়ে কিভাবে নিয়ন্ত্রণে আনা যায় তার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী ও পরিবেশপ্রেমীরা। বিষয়টি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছে বন দপ্তরও।

উল্লেখ্য, মোরাঘাট সংরক্ষিত বনাঞ্চলে সারা বছর হাতি সহ বাইসনের আনাগোনা লক্ষ্য করা য়ায়। কয়েকমাস আগেই মোরাঘাট বনাঞ্চলে হাতির হানায় প্রাণ হারায় ৩ জন মহিলা। বনাঞ্চলে প্রবেশ না করার জন্য এবং ছবি তোলার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা বিষয়ক একাধিক পোস্টার লাগানো হলেও একশ্রেণীর মানুষ তা মানছেন না। বনকর্মীরা সংখ্যায় কম থাকায় বন দপ্তরের পক্ষেও সর্বত্র নজরদারি চালানো সম্ভব হচ্ছে না।

- Advertisement -

মোরাঘাট রেঞ্জের অ্যাটাচড রেঞ্জ অফিসার রাজ কুমার পাল বলেন, ‘কিছু ছেলে মেয়ে বনাঞ্চলের ভেতর ছবি বা ভিডিও করার লক্ষ্যে প্রবেশ করে থাকে সেটা ঠিকই। তবে আমাদের নজরে যখনই এগুলি পড়ে তখনই আমরা তাদের সতর্ক করা সহ ফাইন পর্যন্ত করে থাকি।‘