জিতে ইতিহাস তৈরিতে চোখ বোল্টের

লন্ডন : ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে আগামীকাল শুরু দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। রাত ফুরোলেই ঐতিহাসিক লর্ডসে রুট ব্রিগেডের মুখোমুখি হওয়ার চ্যালেঞ্জ। যদিও নিউজিল্যান্ডের তারকা পেসার ট্রেন্ট বোল্টের মনজুড়ে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে। ভারতকে যে খেতাবি যুদ্ধে হারিয়ে ইতিহাস তৈরিই পাখির চোখ। বোল্টের কথায়, তাঁরা ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে সুযোগ হাতছাড়া করতে রাজি নন।

দলের প্রতি আস্থা রেখে বোল্ট বলেন, যেভাবে ঘরে এবং বাইরে দল পারফর্ম করছে, তাতে ইতিহাস তৈরির ভালো সুযোগ আমাদের সামনে। লম্বা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে ফাইনালে উঠে এসেছি আমরা। দলের প্রত্যেকেই উত্তেজনায় ফুটছে। সাজঘরে ফিলগুড আবহ। আর ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল বড়ো মঞ্চ, আমরা যার জন্য প্রস্তুত।

- Advertisement -

ফাইনালে ডিউক বল গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। ইংলিশ কন্ডিশনে যে বল পেসারদের জন্য বাড়তি অ্যাডভান্টেজ। বোল্ট বলছিলেন, ডিউক বলে খুব বেশি অভিজ্ঞতা নেই আমার। তবে ইংল্যান্ডে বেশ কার্যকর। অন্যরকম আচরণ করে থাকে। ডিউক বলে বোলিংয়ের জন্য দলের প্রত্যেকে বাড়তি উৎসাহী। আশাকরি, আমিও ইংল্যান্ড সিরিজ থেকেই বাকিদের সঙ্গে কাজে নেমে পড়তে পারব। আপাতত মুখিয়ে রয়েছি ইংলিশ কন্ডিশনে বাড়তি সুইংটা উপভোগ করতে।

বোল্ট আগ্রহী আইপিএলের ইউএই-পর্বে অংশ নিতে। স্থগিত আইপিএলের বাকি ৩১টি ম্যাচ আমিরশাহিতে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই। কিন্তু বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওয়া নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে। তবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অন্যতম তারকা বোল্ট ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে বলেন, গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে অনুষ্ঠিত আইপিএল আমাদের জন্য ভালো কেটেছিল। যদিও এবারও সুযোগ মেলে, তাকিয়ে থাকব খেলার জন্য।

ভারতকে অবশ্য মিস করবেন, সেটাও বলে দিচ্ছেন। বোল্টের কথায়, ভারতীয় সংস্কৃতি, সমর্থকদের ভালোবেসে ফেলেছি। কিন্তু এবারের পরিস্থিতিটা সম্পূর্ণ আলাদা। অন্যবারের তুলনায় এবারে রাস্তাঘাট প্রায় শুনশান ছিল। স্টেডিয়াম ফাঁকা। চেনা ছবির সঙ্গে মেলাতে পারছিলাম না।