আদিনা স্টেশনে রেল লাইনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ আদিবাসীদের

247

গাজোল: আদিবাসীদের ধর্ম সারনা ধর্মের জন্য পৃথক কলাম কোড লাগু করার দাবি সহ ৫ দফা দাবির ভিত্তিতে পূর্ব ঘোষণা মত এদিন সকাল থেকে সারা ভারত ব্যাপী রেল রোকো এবং চাক্কা জ্যাম কর্মসূচি পালন করল আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান ও  ঝাড়খন্ড দিশম পার্টির কর্মীরা। এদিন সকাল থেকে আদিনা স্টেশনে রেল লাইনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে আদিবাসীরা। এর জেরে বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়ে পন্য এবং যাত্রীবাহী ট্রেন। পাশাপাশি গাজোলের পান্ডুয়ার  কাছে ছিটকা মহলে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেও বিক্ষোভ দেখায়।দুই আদিবাসী সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে তাদের পাঁচ দফা কর্মসূচির ভিত্তিতে পূর্বঘোষণা মতো এদিনের কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

যার মধ্যে প্রধান দাবি সারনা ধর্মের জন্য পৃথক কলাম কোড লাগু করতে হবে, ঝাড়খন্ডি ডোমিসাইল করতে হবে, ঝাড়খণ্ডে হিন্দির সাথে সাঁওতালি ভাষাকে প্রথম রাজ্য ভাষার মান্যতা দিতে হবে, বীর শহীদ সিদো মুর্মুর বংশধর রামেশ্বর মুর্মুর হত্যার দাবিতে সিবিআই তদন্ত করে ন্যায় বিচার দিতে হবে এবং শহীদ সিদো মূর্মুর আর বিরসা মুন্ডার বংশধরের নামে দুটি ট্রাস্ট গঠন করে প্রতি মাসে ১০০ কোটি করে টাকা ফিক্সট ডিপোজিট নিতে হবে। জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। যদিও পুলিশ দীর্ঘক্ষণ ধরে আলাপ আলোচনা চালিয়ে সকাল দশটা নাগাদ জাতীয় সড়ক অবরোধ মুক্ত করতে সমর্থ হয়।

- Advertisement -

কিন্তু সকাল থেকেই আদিনা রেলস্টেশনে আদিবাসীদের অবরোধ কর্মসূচি চলতে থাকে। রেল অবরোধের জেরে আটকে পড়ে বিভিন্ন পণ্যবাহী এবং যাত্রীবাহী ট্রেন। আদিনা রেল স্টেশনের ম্যানেজার ভোলানাথ সিং জানালেন সকাল ৬টা ৪০ থেকে রেল অবরোধ চলছে যার ফলে আটকে রয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা, গরিব রথ সহ বেশ কয়েকটি যাত্রীবাহী ট্রেন। আদিনা স্টেশনে দাঁড়িয়ে রয়েছে একটি পণ্যবাহী ট্রেনও। অবরোধ তোলার জন্য আলোচনা চালাচ্ছে আরপিএফ। অবশেষে সকাল ১১টা নাগাদ আলোচনা চালিয়ে অবরোধ মুক্ত করা হয় রেললাইন। এদিনের কর্মসূচি ঘিরে পুলিশ প্রশাসন ও আরপিএফ এর তরফে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছিল।