রাস্তা তৈরি নিয়ে তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষ, জখম ১৫

414

বর্ধমান: গ্রামের রাস্তা তৈরি নিয়ে তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের প্রায় ১৫ জন জখম হলেন। মঙ্গলবার এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের কালনা-২ ব্লকের অনুখাল পঞ্চায়েতের কদম্বা গ্রামে। খবর পেয়ে কালনা থানার পুলিশ গ্রামে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। জখমদের সবাইকে উদ্ধার করে কালনা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উত্তেজনা থাকায় এলাকায় জারি রয়েছে পুলিশি টহল।

প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অনুখাল পঞ্চায়েত থেকে কদম্বা গ্রামে ঢালাই রাস্তা তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রাস্তা তৈরি করতে গিয়ে দেখা যায় রাস্তার কিছুটা অংশ প্রাচীর দেওয়া অবস্থায় দখলীকৃত হয়ে রয়েছে।গ্রামের কয়েকজন দাবি তোলেন, প্রাচীর সরিয়ে দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করা হোক। এই দাবি তোলেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরাও।

- Advertisement -

অভিযোগ, কাউকে চটাতে না চেয়ে গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্তারা সেই দাবি না মেনে যেটুকু জায়গায় রাস্তা আছে তার উপরেই ঢালাই রাস্তা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন। এই নিয়ে দুই পক্ষের বিবাদ বাঁধে। মঙ্গলবার সকালে ওই রাস্তা নির্মাণের বালি ও পাথর পড়লে দু’পক্ষের বিরোধ চরমে ওঠে। পরে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের প্রায় ১৫ জন জখম হন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

কালনা-২ ব্লক তৃণমূলের কংগ্রেসের সভাপতি প্রণব রায় বলেন, পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে একটি ঢালাই রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু হয়। যে রাস্তাটি তৈরি হচ্ছে, সেই রাস্তার উপর দু-একজনের বাড়ির কিছুটা অংশ পড়ছে।বাড়িগুলি শতাধিক বছরের পুরোনো। আর এই নিয়েই বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী-সমর্থক মারপিট অশান্তি সৃষ্টি করে। এদিনের সংঘর্ষে তৃণমূলের ৬ জন গুরুতর জখম হয়েছেন।

এলাকার বিজেপি নেতা সুশান্ত পান্ডে বলেন, বেআইনিভাবে রাস্তা নির্মাণের কাজ চলছিল। সরকারিভাবে রেকর্ড থাকা ৭ ফুট রাস্তার অংশ অনেকেই দখল করে রয়েছেন। বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনের নজরেও আনা হয়।তারপরেও রাস্তার জায়গা দখলমুক্ত না করে গায়ের জোরে আজ সেই রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু হয়। বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা তার প্রতিবাদ করলে তৃণমূলের লোকজন আমাদের কর্মীদের মারধোর করে। তাঁরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কালনার এক পুলিশ অফিসার জানান, এই ঘটনার তদন্ত চলছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।