ফালাকাটায় প্রচারে টক্কর তৃণমূল বিজেপির

97

ফালাকাটা: ফালাকাটায় ভোট প্রচারের কৌশল নিয়ে এবার তৃণমূল কংগ্রেসকে টেক্কা দিচ্ছে বিজেপি। বৃহস্পতিবার তৃণমূল প্রার্থীর এলাকায় প্রচারে ঝড় তুলল পদ্মশিবির। গুয়াবরনগর অঞ্চলের প্রত্যেকটি বুথে গিয়ে সব স্তরের মানুষের কাছে ভোটের আবেদন জানান বিজেপির প্রার্থী দীপক বর্মন। যদিও বিজেপির প্রচারকে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল।

ফালাকাটা বিধানসভা কেন্দ্রে ১৩টির মধ্যে গুয়াবরনগর সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। এই অঞ্চলের ভুটনিরঘাট এলাকা একসময় বামেদের ঘাঁটি ছিল। ফালাকাটার অন্যান্য অঞ্চলে বামফ্রন্ট কিছুটা ঘুরে দাঁড়াতে পারলেও ভুটনিরঘাটে এখন দুই প্রতিপক্ষ হল তৃণমূল ও বিজেপি। একসময়ের বাম সমর্থকরাই বর্তমানে দুই দলের অনুগামী। গত পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনে এই গুয়াবরনগর অঞ্চলে বিজেপির ভোট অনেকটাই বেড়ে যায়। সেই কারণে অনেক আগে থেকেই গুয়াবরনগরে ভোট বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করছে তৃণমূল। তাই নাম ঘোষনার পর থেকে অন্যান্য অঞ্চলের পাশাপাশি নিজের গুয়াবরনগর অঞ্চলেও দফায় দফায় প্রচার চালিয়েছেন প্রার্থী সুভাষ রায়। এখন তৃণমূলের সেই প্রচারকে টক্কর দিতে প্রার্থী নিয়ে ময়দানে নেমেছে বিজেপি।

- Advertisement -

বিজেপির তরফে এদিন গুয়াবরনগরের ভুটনিরঘাট, প্রধানপাড়া, সিংপাড়া, কালীমন্দির, বগরিবাড়ি, বিএড, কলেজ, তপসিতলা, গোকুলনগরের রেলগেট সহ বুথে বুথে প্রচার চালানো হয়। প্রার্থী দীপক বর্মনের সঙ্গে দলের মণ্ডল, শক্তিকেন্দ্র ও স্থানীয় নেতানেত্রী সহ ৭টি মোর্চা সংগঠনের পদাধিকারীরা উপস্থিত ছিলেন। বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক তথা প্রার্থী দীপক বর্মন বলেন, ‘গুয়াবরনগরের প্রতিটি বুথেই এদিন গিয়েছি। মানুষের ব্যাপক সাড়া মিলেছে। প্রবীণ বাসিন্দাদের কাছে আশীর্বাদ পেয়েছি।’

এ প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের ফালাকাটা ব্লক সভাপতি তথা প্রার্থী সুভাষ রায় বলেন, ‘সিপিএমের আমলেও এই অঞ্চল তৃণমূলের দখলে ছিল। আর গত লোকসভায় এখানকার বাম ভোট বিজেপি পেয়েছে। আমি নিজে এই অঞ্চলের বাসিন্দা। তাই অঞ্চলের মানুষ এবার রং না দেখেই তৃণমূলকে ভোট দেবেন।কারণ, বিজেপির প্রার্থী ভূমিপুত্র নন।’