যুবতীকে শ্লীলতাহানি ও অশ্লীল প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বুথ সভাপতি ও তার বন্ধুর বিরুদ্ধে

357

ফালাকাটা,৫ মার্চঃ যুবতীকে শ্লীলতাহানি ও অশ্লীল প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগে নাম জড়াল তৃণমূলের বুথ সভাপতি সহ তার এক বন্ধুর বিরুদ্ধে। ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূলের বুথসভাপতি মলয় রায়কে বুধবার রাতেই ঘটনাস্থল থেকে গ্রেপ্তার করেছে জটেশ্বর ফাঁড়ির পুলিশ। তবে পলাতক তার বন্ধু বিপুল রায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় তৃণমূলের বুথ সভাপতি মলয় রায় ও তার বন্ধু বিপুল রায় ওই যুবতীর বাড়িতে যায় মিশন নির্মল বাংলা প্রকল্পের টাকা সংগ্রহ করতে। অভিযোগ বাড়ি ফাঁকা পেয়ে মলয় রায় ও তার বন্ধু যুবতীর ঘরে ঢুকে অশ্লীল ভাষায় কথাবার্তা বলতে শুরু করে। কিছুক্ষণ পর বন্ধুকে একা রেখে ঘর থেকে বাইরে বেড়িয়ে যায় মলয় রায়। তার পরেই বন্ধু বিপুল রায় যুবতীকে শ্লীলতাহানি করে। যুবতী চিৎকার শুরু করলে সেখান থেকে পালিয়ে যান অভিযুক্ত বিপুল রায়। এদিকে চিৎকার শুনে ছুটে আসে প্রতিবেশীরা। সেই সময় আবার ওই যুবতির বাড়িতে হাজির হয় বুথ সভাপতি মলয় রায়। তারপরেই স্থানীয়রা তাকে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। জটেশ্বর ফাঁড়ির পুলিশ জানিয়েছে ঘটনাস্থল থেকে মলয় রায়কে আটক করা হলেও অভিযুক্ত বিপুল রায় পলাতক।
এদিকে এমন একটি ঘটনায় বুথ সভাপতির নাম জড়িয়ে যাওয়ায় অস্বস্তিতে পরেছেন এলাকার তৃণমূলের নেতা কর্মীরা। গোটা ঘটনা নিয়ে দলের অন্দরে চলছে জোড় জল্পনা। এবিষয়ে ফালাকাটা ব্লকের তৃণমূল যুগ্ম সম্পাদক সুরেশ লালা বলেন, ‘আমি বাইরে ছিলাম বিষয়টি জানিনা। খোঁজ নিয়ে দেখব’।

 

- Advertisement -