রোড শো করে প্রচার গঙ্গারামপুর আসনের তৃণমূল প্রার্থীর

71

তপন: বাংলা বছরের শেষ দিনে হুডখোলা গাড়িতে চেপে রোড শো করলেন গঙ্গারামপুর আসনের তৃণমূল প্রার্থী গৌতম দাস। বুধবার তৃণমূল প্রার্থী প্রচারের ঝড় তুললেন তপনের সীমান্তবর্তী এলাকায়। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ছয়টি আসনের মধ্যে অন্যতম আসন গঙ্গারামপুর। এবার এই আসনে ত্রিমুখী লড়াই হতে চলেছে। গঙ্গারামপুর আসনে তৃণমূল প্রার্থী করেছে গৌতম দাসকে। গৌতম বাবু ২০১৬ সালে বাম জোটের কংগ্রেস প্রার্থী ছিলেন। তৃণমূল থেকে আসা সত্যেন্দ্রনাথ রায়কে প্রার্থী করেছে বিজেপি। সত্যেন বাবু ২০১১ সালে গঙ্গারামপুর আসনে তৃণমূলের বিধায়ক ছিলেন। অপরদিকে, সংযুক্ত মোর্চার এবারের সিপিএমের আসনে নন্দলাল হাজরাকে প্রার্থী করেছে।

স্বাভাবিকভাবেই, বাম কংগ্রেস দলবদল প্রার্থীকে ইস্যু করে প্রচারে যেমন ঝাপিয়েছে। পাশাপাশি, তৃণমূল ও বিজেপি প্রার্থীরা এক রকম আদাজল খেয়ে নির্বাচনি ময়দানে নেমেছে। সেই মতো এদিন সকাল থেকে তপন ব্লকের গুড়াইলের সীমান্তবর্তী এলাকায় হুডখোলা গাড়িতে চেপে প্রচারের ঝড় তুললেন গঙ্গারামপুর আসনে তৃণমূল প্রার্থী গৌতম দাস। এদিন সকালে তৃণমূল প্রার্থী গৌতম দাস তপনের হারদিঘি থেকে হুডখোলা গাড়িতে চেপে রোড শো শুরু করেন। তারপর কুপাদহ, নবাব নগর, কুড়াহার, ঘাটিকা, গুড়াইল, লক্ষ্মী নারায়নপুর এলাকা পরিক্রমা করে। গৌতম বাবুর রোড় শো ছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের মোটর বাইক মিছিল। গৌতম বাবুর সঙ্গে রোড শোতে উপস্থিত ছিলেন তপন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রাজু দাস, তৃণমূল নেতা অসিত সরকার, কার্তিক রায় প্রমুখ।

- Advertisement -

তৃণমূল প্রার্থী গৌতম দাস বলেন, ‘আজকে রোড শোর মাধ্যমে গঙ্গারামপুর বিধানসভার অন্তর্গত তপনের গুড়াইলে প্রচার করা হল। এলাকার মানুষের কাছে ব্যাপক সাড়া মিলেছে। মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে রোড শোতে অংশ নিয়েছিলেন।’ তিনি আর বলেন, ‘আমি সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী নন্দলাল হাজরা ও বিজেপি প্রার্থীকে সমানভাবে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দেখছি। কারণ সংগঠনের দিক থেকে হয়ত কোথাও কোথাও সিপিএম রয়েছে। কিন্তু বিজেপির সংগঠন নেই। তাঁরা শুধু ধর্মের নামে ভোট করাতে চাইছে।’