সিটু আয়োজিত কমিউনিটি কিচেনে খাবার পরিবেশন তৃণমূল জেলা সভাপতির

534

তপনকুমার বিশ্বাস, ইসলামপুর: সিটু আয়োজিত কমিউনিটি কিচেনে বা লঙ্গরখানায় খাবার পরিবেশন করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল। সিপিএম প্রভাবিত শ্রমিক সংগঠন সিটুর এই কর্মসূচিতে খাদ্য পরিবেশন করে সৌজন্যের পরিচয় দিলেন তিনি।

সিটু সূত্রে জানা গিয়েছে, শ্রমিক দিবসের দিন থেকে অসহায় ও দুঃস্থ মানুষদের জন্য দুপুরে ও রাতে দুবেলাই খোলা থাকছে এই লঙ্গরখানা। রবিবার প্রায় ৬০০ মানুষ দুপুরে ডিমের ঝোল ভাত খান। রবিবার লঙ্গরখানায় এসে হাতা, চামচ তুলে নেন কানাইয়াবাবু। তিনি স্বতঃস্ফূর্তভাবে খাদ্য বণ্টনে অংশগ্রহণ করেন।

- Advertisement -

ইসলামপুরের নাগরিক মঞ্চের পক্ষে সুভাষ চক্রবর্তী বলেন, সামাজিক স্বার্থে যে রাজনীতি নয়, তার প্রমান পাওয়া গেল এদিন। রাজ্যের অন্যান্য শহরে রাজনৈতিক নেতাদের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ থাকলেও ইসলামপুরে রাজনৈতিক সৌহার্দ্যের অভাব হয়নি কখনও।

সিপিএমের ইসলামপুর এরিয়া কমিটির সম্পাদক তথা সিটু উত্তর দিনাজপুর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য বিকাশ দাস জানান, তাঁদের এই কমিউনিটি কিচেনে উপস্থিত হওয়ার জন্য সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রন জানানো হয়েছিল। দলমত নির্বিশেষে এলাকার দুঃস্থ মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার  উদ্দেশ্যেই খোলা এই কমিউনিটি কিচেন। এদিন পুরসভার চেয়ারম্যান তাঁদের ডাকে সাড়া দিয়ে হাজির হওয়ার জন্য তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।

কানাইয়াবাবু বলেন, ওই কমিউনিটি কিচেনে আমাকে সংগঠনগতভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। ওই পাড়ার কয়েকজন আমাকে কদিন থেকেই ওই কমিউনিটি কিচেনে যেতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। কাজের চাপে এতদিন যেতে পারিনি। রবিবার কাজের চাপ কম থাকায় ওখানে হাজির হই। নিজের হাতে মানুষের হাতে খাবার তুলে দিয়েছি। মানুষের পাশে দাঁড়ানোটাই বড়ো কথা। আগে মানুষ, তারপরে রাজনীতি। এই কঠিন সময়ে রাজনীতি দেখা ঠিক নয়। এই আয়োজনের জন্য আয়োজকদের সাধুবাদ জানাই।