অনাস্থায় জয়, বিজেপির ঘর ভাঙিয়ে বোর্ড গড়ল তৃণমূল

38

রায়গঞ্জ: অনাস্থায় জয় পেয়ে সোমবার রায়গঞ্জ ব্লকের বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন করল তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে, গেরুয়া শিবিরের সংশ্রব ত্যাগ করে এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন ৯ পঞ্চায়েত সদস্য সহ প্রায় এক হাজার বিজেপি কর্মী। নবগঠিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচিত হন বাসু চরে, উপপ্রধান পদে দায়িত্ব পেলেন রফিকুল আলম। ঘটনায় খুশির আবহ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাজুড়ে। চলল সংবর্ধনা সভা, ভুড়িভোজ পর্ব।

বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরঘই গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৪টি আসনের মধ্যে ১৬টি আসনে জয় পায় গেরুয়া শিবির। তৃণমূলের দখলে থাকে মাত্র ৮টি আসন। স্বাভাবিকভাবেই বোর্ড গঠন করে বিজেপি। যদিও বোর্ড গঠনের আড়াই বছর অতিক্রান্ত হতেই বিজেপির ৯ বিক্ষুব্ধ সদস্য তৃণমূলের ৮ পঞ্চায়েত সদস্যের সঙ্গে জোট বেঁধে প্রধান ও উপ-প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন অগাস্ট মাসের শুরুর দিকে। ২৩ অগাস্ট অনাস্থা প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে তলবি সভা বসে। অনাস্থায় জয় পায় তৃণমূল। এরপর এদিন বোর্ড গঠন হল তৃণমূলের নেতৃত্বে। উপস্থিত ছিলেন কালিয়াগঞ্জের প্রাক্তন বিধায়ক তপন দেবসিংহ, কালিয়াগঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি নিতাই বৈশ্য, তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সহ-সভাপতি সঞ্জয় মিত্র, রায়গঞ্জ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান অরিন্দম সরকার সহ অন্যান্যরা।

- Advertisement -

সঞ্জয় মিত্র জানান, বিজেপির দূর্নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়ে বিজেপির ৯ সদস্য তৃণমূলে যোগ দিলেন। উন্নয়নের স্বার্থে আগামীতে বাকিরাও তৃণমূলে যোগ দেবেন।