তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে সরকারি জমি দখলের অভিযোগ, উদাসীন প্রশাসন

152

খড়িবাড়ি: বাতাসি হাসপাতালের পর এবার খড়িবাড়িতে সরকারি জমি দখল করে নির্মাণকাজ শুরুর অভিযোগ উঠল তৃণমূলের ব্লকস্তরের এক নেতার বিরুদ্ধে। অভিযোগ করা সত্ত্বেও এনিয়ে ব্লক প্রশাসন নির্বিকার বলে জানিয়েছে সিপিএম। ঘটনাকে কেন্দ্র করে সমালোচনার ঝড় উঠতেই বিডিও দ্রুত উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।

খড়িবাড়ি হাটের পাশে ডিআই ফান্ডের প্রায় দুই বিঘা জমির ওপর অবস্থিত খড়িবাড়ি বাসস্ট্যান্ড। বাসস্ট্যান্ডটি খড়িবাড়ি পঞ্চায়েত সমিতির নিয়ন্ত্রণে। শিলিগুড়ি মহকুমায় পঞ্চায়েত নির্বাচন না হওয়ায় বর্তমানে পঞ্চায়েত সমিতির কোনও সভাপতি নেই। স্বাভাবিকভাবেই বাসস্ট্যান্ডটি এখন খড়িবাড়ি বিডিওর অধীনে রয়েছে। খড়িবাড়ি বাসস্ট্যান্ডের জায়গা ক্রমেই দখল হয়ে চলেছে। সম্প্রতি এই বাসস্ট্যান্ডটি থেকে পার্কিং ফি আদায়ের জন্য খড়িবাড়ি পঞ্চায়েত সমিতির তরফে লিজ দেওয়া হয়েছে তৃণমূলের খড়িবাড়ি ব্লক সংখ্যালঘু সেলের সাধারণ সম্পাদক মহম্মদ জাহাঙ্গীর আলমকে। বাস স্ট্যান্ডের ভিতরে ওই তৃণমূল নেতা প্রথমে একটি টায়ারের ঝুপড়ি দোকান করেন। সম্প্রতি তিনি পাকা পিলার তৈরির কাজ শুরু করেছেন। প্রতিবাদে সরব হয়ে গত ৩০ জুলাই খড়িবাড়ি বিডিও কাছে অভিযোগ জানায় সিপিএমের খড়িবাড়ি-বুড়াগঞ্জ এরিয়া কমিটি। অভিযোগ পেয়ে খড়িবাড়ি বিডিও ওই তৃণমূল নেতাকে কাজ বন্ধ রাখতে বলেন। কিন্তু বিডিওর নির্দেশকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে রাতারাতি নির্মাণকাজ শুরু করেন ওই তৃণমূল নেতা। শুক্রবার ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানায় ডিওয়াইএফআই ও এসফআইয়ের কর্মীরা।

- Advertisement -

ডিওয়াইএফআইয়ের খড়িবাড়ি-বুড়াগঞ্জ এরিয়া সভাপতি বিট্টু জয়সওয়াল খড়িবাড়ি বিডিওর তীব্র সমালোচনা করে বলেন, ‘শাসকদলের নেতারা সরকারি বাসস্ট্যান্ডের জমি দখল করেছেন।’ এদিকে, নির্মাণকাজের কোনও অনুমতি প্রশাসনের কাছ থেকে নেননি বলে জানান অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা মহম্মদ জাহাঙ্গীর আলম। তিনি জানান, ঝুপড়ি দোকানটি সুরক্ষার জন্য তিনি পাকাপোক্তভাবে তৈরি করছেন। খড়িবাড়ির বিডিও নিরঞ্জন বর্মন নির্মাণ বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছেন।