লকডাউন উপেক্ষার অভিযোগে আটক তৃণমূল নেতা

1169

রামপুরহাট: লকডাউনে উদ্দেশ্যহীনভাবে মোটরবাইক নিয়ে ঘোরাফেরা করার অভিযোগে এক তৃণমূল নেতাকে আটক করে থানায় নিয়ে গিয়ে ছেড়ে দিল পুলিশ। যদিও তৃণমূল নেতার দাবি, তিনি ওষুধ কিনতে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে ছিলেন।

জানা গিয়েছেন, লকডাউন সফল করতে বৃহস্পতিবার বেলার দিকে রামপুরহাট শহরের প্রাণকেন্দ্র পাঁচমাথা মোড়ে ধরপাকড় করছিলেন মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সৌমজিত বড়ুয়া। সে সময় রামপুরহাট পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূলের বুথ সভাপতি সুজিত পাল হেলমেট ছাড়াই মোটরবাইক নিয়ে সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সৌম্যজিত বড়ুয়া তাকে বাড়ির বাইরে বের হওয়ার কারণ জানতে চান। তিনি ওষুধ কিনতে বেরিয়েছেন বলে পুলিশকে জানান। কিন্তু ওষুধের প্রেসক্রিপসন দেখাতে পারেননি। এর পরেই পুলিশের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি শুরু হয়। মহকুমা পুলিশ আধিকারিক থানায় ফোন করে পুলিশ ডেকে তাঁকে থানায় তুলে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। মোটরবাইকটিও থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। অবশ্য থানায় নিয়ে গিয়েই ছেড়ে দেওয়া হয় ওই তৃণমূল নেতাকে।

- Advertisement -

সুজিতবাবু বলেন, “আমি সুগারের, পেসারের রোগী। প্রতিদিন আমাকে ওষুধ লাগে। তাই আমি ওষুধ আনতে বেরিয়েছিলাম। প্রেসক্রিপশন রয়েছে কলকাতায় ছেলের কাছে। আমি এখানে একটি দোকান থেকে নিয়মিত ওষুধ কিনি। ফলে আমার প্রেসক্রিপশন লাগে না। পুলিশকে সে কথা বলা সত্ত্বেও আমাকে ধরে থানায় নিয়ে গিয়ে ছেড়ে দিল”।