সরকারি দপ্তরের সমালোচনায় মুখর তৃণমূল নেতা

39

জলপাইগুড়ি: বাম আমলে ঘুঘুর বাসা ছিল ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তরগুলি। তৃণমূল কংগ্রেসের আমলেও গুরুত্বপূর্ণ এই দপ্তর ঘুঘুর বাসাই রয়ে গিয়েছে। সোমবার এভাবেই আক্রমণ শানালেন জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ দেবাশিষ প্রামাণিক। এদিন অভিযোগ করে তিনি জানান, গরিব মানুষ কোনও পরিষেবা পান না। যদিও এই দপ্তরে বিত্তবানদের কাজ হয় যুদ্ধকালীন তৎপরতায়। অন্যদিকে, সরকারি জমি দখলের প্রসঙ্গ তুলে তাঁর আরও অভিযোগ, জলপাইগুড়ি জেলার মধ্যে রাজগঞ্জ ব্লকে সবচেয়ে বেশি জেলা পরিষদের জমি দখল হয়েছে। এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোনও লাভ হয়নি। জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদ রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিত্তবান হতে পারত, যদি দুই হাজার কোটি টাকার জমি উদ্ধার করা সম্ভব হত। তিনি জানান, জেলা পরিষদকে পদক্ষেপ গ্রহণে কথা জানানো হবে। এরপরও অবস্থার পরিবর্তন না হলে জেলা পরিষদ সদস্য নিজ নিজ ব্লকে ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তরের সামনে অবস্থান ঘেরাও আন্দোলনে শামিল হবেন।