সংবাদমাধ্যমকে নিশানা করে কটুক্তি তৃণমূল বিধায়কের! সরব বিজেপি

134

বর্ধমান: ‘দু’পয়সার প্রেস’ মন্তব্যের মাধ্যমে সংবাদমাধ্যমকে অপমান করেছিলেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। এবার সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে আপত্তিকর মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন বর্ধমান দক্ষিনের নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক খোকন দাস। ঘটনায় ইতিমধ্যে শোরগোল পড়ে গিয়েছে বর্ধমানের রাজনৈতিক মহলে। অন্যদিকে, তৃণমূল বিধায়কের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির।

রবিবার তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে দুঃস্থদের খাদ্যসামগ্রী বিলির অনেুষ্ঠান আয়োজিত হয় বর্ধমান পুর এলাকার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। সেই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিধায়ক খোকন দাস বলেন, ‘এবারেও তাঁরা অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে ক্ষমতায় এসেছে। আর একটা রাজনৈতিক দল সাংবাদিকদের মাধ্যমে টাকা দিয়ে, পয়সা ছড়িয়ে, মদের বোতল দিয়ে ভেবেছিল ওরা ক্ষমতা দখল করবে। এভাবে ক্ষমতা দখল করা যায় না। কারণ বাংলার নেত্রী সব মানুষের মনে রয়েছেন।’ সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে তৃণমূল বিধায়ক খোকন দাসের এহেন মন্তব্য ঘিরে শুরু নয়া বিতর্ক।

- Advertisement -

এবিষয়ে বিজেপির পূর্ব বর্ধমান জেলার সহ-সভাপতি প্রবাল রায় বলেন, ‘সংবিধান মেনে চলার শপথ নেওয়া একজন বিধায়ক সংবাদমাধ্যমকে জড়িয়ে যেসব মন্তব্য করেছেন তার তীব্র নিন্দা জানাই।’ একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকদের গণতন্ত্রের একটা স্তম্ভ’ বলেই মনে করে বিজেপি। তাদের টাকা কিংবা মদের বোতল দিয়ে কেনার কথা বিজেপির কেউ ভাবতেও পারে না। বরং বিধায়ক হবার জন্য ওনারা কি পথ নিয়েছিলেন সেটা ওনরাই ভালো বলতে পারবেন। তারর কথায়, গত বছর সাংসদ মহুয়া মৈত্র ‘দু’পয়সার প্রেস’ বলে সংবাদমাধ্যমকে অপমান করেছিলেন। এবার একইভাবে সাংবাদিকদের অপমান করলেন বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক।এর বিরুদ্ধে সাংবাদিকদেরই গর্জে উঠতে হবে।