শীতলকুচির ঘটনায় তৃণমূলের নিশানায় কোচবিহারের পুলিশ সুপার

125

কলকাতা: ‘কোল্ড ব্লাডেড মার্ডার’ বা ঠান্ডা মাথায় হত্যা। শনিবার রাজ্যের চতুর্থ দফা ভোটে শীতলকুচিতে বাহিনীর গুলিতে ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনায় নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া একটি চিঠিতে এমনই শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে। সেই ঘটনাতেই তৃণমূলের নিশানায় রয়েছেন কোচবিহারের পুলিশ সুপার।

তৃণমূলের অভিযোগ, শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালিয়ে ৪ জনকে হত্যা করেছে। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। কোচবিহারের আগের পুলিশ সুপারকে সরিয়ে কমিশনের পক্ষ থেকে নতুন পুলিশ সুপার নিয়োগ করা হয়েছিল। যিনি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে পরিচালনা করছিলেন। কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে তৃণমূলের তরফ থেকে প্রথম দফায় ৬টি, দ্বিতীয় দফায় ১৮টি ও তৃতীয় দফায় ১৩৪টি অভিযোগ করা হলেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী যখন কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তখনও কোনও ব্যবস্থা না নিয়ে তাঁকে শোকজ করা হয়েছিল বলে ক্ষোভ তৃণমূলের।

- Advertisement -

এদিন শীতলকুচির ঘটনায় দোষী কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান, তাদের ঊর্দ্ধতন কর্তা বা কোচবিহারে কমিশন নিযুক্ত এসপির বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে তা জানতে চেয়েছে তৃণমূল।