সোশ্যাল মিডিয়ায় দলীয় কার্যকলাপ নিয়ে সক্রিয় হতে ফালাকাটায় তৃণমূলের প্রশিক্ষণ

182

সুভাষ বর্মন, ফালাকাটা: সোশ্যাল মিডিয়ায় দলীয় কার্যকলাপ নিয়ে নেতা-কর্মীদের সক্রিয় করে তুলতে উদ্যোগী হল তৃণমূল কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার ফালাকাটার বেশ কয়েকটি অঞ্চলের যুব নেতা-কর্মীদের দলীয় কাজকর্ম নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় করে তুলতে প্রশিক্ষণ দেন তৃণমূলের নেতারা। প্রায় দু’শো কর্মীদের নিয়ে এই প্রশিক্ষণের জন্য বেছে নেওয়া হয় খয়েরবাড়ি বনাঞ্চলকে।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে সোশ্যাল মিডিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে। কারণ, যুব প্রজন্ম ও নতুন ভোটাররা সোশ্যাল মিডিয়ায় বুঁদ হয়ে থাকে। এই প্রজন্মের ভোটকে টার্গেট করেই গত এক মাস আগে ফালাকাটায় সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচালনা করার জন্য টিম তৈরি করে নেয় বিজেপি। মূলত বিজেপির যুব মোর্চার নেতারাই সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় রয়েছেন। এই নিয়ে ধাপে ধাপে বিজেপির প্রশিক্ষণ শিবিরও করা হয়। তখন তৃণমূল কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়া সেল অনেকটাই নিষ্ক্রীয় ছিল। কিন্তু ভোটের সময় যত ঘনিয়ে আসছে, তৃণমূলের নানা শাখা সংগঠন ততই সক্রিয় হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সঠিকভাবে যাতে রাজ্য সরকারের নানা প্রকল্পের প্রচার করা যায় এবং বিজেপি বিরোধী জনমত গড়ে তোলা যায়, সেজন্য তৃণমূল কংগ্রেসও এখন এই নিয়ে ঘুঁটি সাজিয়েছে। তাই অঞ্চল ভিত্তিক প্রশিক্ষণ চলছে।

- Advertisement -

এদিন খয়েরবাড়িতে তৃণমূলের প্রশিক্ষণ শিবিরে জটেশ্বর-১, জটেশ্বর-২, দলগাঁও ও গুয়াবরনগর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার প্রায় দু’শো যুব কর্মী শামিল ছিলেন। নেতৃত্বদের মধ্যে ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের ফালাকাটা ব্লক সভাপতি সুভাষ রায়, যুব তৃণমূলের ব্লক সভাপতি শুভব্রত দে, যুব-র জেলা সাধারণ সম্পাদক দেবজিৎ পাল, সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান প্রমুখ। সূত্রের খবর, সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে দক্ষ নেতারা এদিন নানা কৌশল সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি সুভাষ রায় জানান, রাজ্য সরকারের নানা উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কথা বেশি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকার তথা বিজেপির ভ্রান্ত নীতির বিরুদ্ধেও পালটা প্রচার করার বার্তা এদিন দেওয়া হয়।