কুচলিবাড়ির অনস্থা প্রস্তাবের ভোটাভুটিতে জয়ী তৃণমূল, বয়কট বিজেপির

222

মেখলিগঞ্জ: পুলিশের কড়া নিরাপত্তাতে মেখলিগঞ্জের কুচলিবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে অনস্থা প্রস্তাবের ভোটাভুটি হয় মঙ্গলবার। সেই ভোটাভুটিতে জয়ী তৃণমূল। বিজেপির ৭ পঞ্চায়েত সদস্য বয়কট করায় ১০-০ ভোটে অনাস্থা প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। গত পঞ্চায়েত ভোটে ১৭ আসন বিশিষ্ট কুচলিবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত ত্রিশঙ্কু হয়। বিজেপি ৭, তৃণমূল ৫, ফরওয়ার্ড ব্লক ৩ ও নির্দল ২ টি আসনে জয়ী হয়। ফওয়ার্ড ব্লক ও নির্দলের পঞ্চায়েত সদস্যদের নিয়ে বোর্ড দখল করে তৃণমূল। পরবর্তীতে ফরওয়ার্ড ব্লক ও নির্দলের পঞ্চায়েত সদস্যরা সরাসরি তৃণমূলে যোগ দেয়। এরপর থেকে একাধিকবার চলেছে দলবদলের খেলা।

অনাস্থা প্রস্তাব পাশ হওয়ার পর তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যরা জানিয়েছেন নতুন বোর্ড গঠন করে এলাকার উন্নয়ন করাই হবে প্রথম লক্ষ্য। তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য বঙ্কিম রায় বলেন,’পঞ্চায়েত ভোটের পর আমরা বোর্ড দখল করি। কিন্তু মানুষের রায়কে উপেক্ষা করে প্রধান বিজেপিতে যোগ দেয়। ফলে আমরা অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলাম। প্রত্যাশা অনুযায়ী ভোটাভুটিতে আমাদের জয় হয়েছে।‘ অনাস্থা প্রস্তাব পাশ হওয়ার পর ৩০ দিনের মধ্যে নতুন পঞ্চায়েত বোর্ড ও প্রধান নির্বাচন করার নিয়ম রয়েছে। আর তাই দ্রুত নতুন বোর্ড তৈরি হবে বলেই মনে করছে সাধারণ মানুষ। তবে নতুন প্রধান কে হবে তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে ইতিমধ্যেই।

- Advertisement -

অন্যদিকে অনাস্থা প্রস্তাবকে ঘিরে কুচলিবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত চত্বরে পুলিশি নিরাপত্তা ছিল চোখে পড়ার মত। মেখলিগঞ্জের সার্কেল ইন্সপেক্টর পূরণ রাই, কুচলিবাড়ির ওসি কাজল দাস সহ একাধিক পুলিশ আধিকারিক উপস্থিত ছিলেন।