জেনে নিন ট্রাম্পের শত্রু কে

604
ফাইল ছবি।

ওয়াশিংটন: আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে এই মুহূর্তে করোনা তাঁর একমাত্র শত্রু নয়। মার্কিন সংবাদমাধ্যমের বড় অংশকেও শত্রুপক্ষ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন তিনি।

ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ট্রাম্পের দ্বৈরথ চলছে। চলতি সংকটের আবহে তা আরও তীব্র হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সম্প্রতি হোয়াইট হাউসের সাংবাদিক বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট আক্রান্তদের শরীরে জীবাণুনাশক ইনজেক্ট করার কথা বলেছিলেন।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: জার্মানিতে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ ডাক্তারদের

তাঁর প্রস্তাব নিয়ে সংবাদমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এর আগে করোনা ভাইরাসকে মারতে শরীরে জোরালো আলো প্রবেশ করানোর কথা জানিয়েছিলেন তিনি। তা নিয়ে তাঁর সঙ্গে সংবাদমাধ্যমের সংঘাতও বেধেছিল। এই পরিস্থিতিতে ট্রাম্পের দপ্তরের তরফে সোমবার হোয়াইট হাউসে পূর্বঘোষিত সাংবাদিক বৈঠকটি আচমকা স্থগিত রাখার কথা জানানো হয়েছিল। যদিও শেষ মুহূর্তে আবার বৈঠক হবে বলে ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন: ব়্যাপিড টেস্টিং কিট নিয়ে ভারতকেই দুষছে চিন

তবে এবার মার্কিন প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের বিষয়বস্তু আগে থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ট্রাম্পের প্রেসসচিব ক্যালিগ ম্যাকেনরি টুইট করে সংবাদমাধ্যমের ভূমিকার সমালোচনা করেছেন। সাংবাদিকদের ওপর ট্রাম্প যে কতটা ক্ষুব্ধ, সেটা তাঁর একাধিক টুইট থেকে স্পষ্ট। সোমবার এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ভুয়ো খবর জনগণের শত্রু। আমাদের দেশের ইতিহাসে এখনকার চেয়ে জঘন্য ও শত্রুভাবাপন্ন মিডিয়া কখনও ছিল না।