দুমাসেই খারাপ ৩ লাখ টাকায় বসানো টিউবওয়েল

212

বিন্নাগুড়ি : এলাকার জলের সমস্যা মেটাতে ধূপগুড়ি ব্লক অফিসের তরফ থেকে প্রায় ৩ লাখ টাকা ব্যয়ে বসানো রিগবোর টিউবওয়েল দুমাসের মধ্যেই খারাপ হয়ে গিয়েছে। বিন্নাগুড়ি এসএম কলোনির মন্দির সংলগ্ন এলাকায় দুমাস আগে একটি রিগবোর টিউবওয়েল বসানো হয়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, দুমাসের মধ্যে কলটি দুবার মেরামত করা হলেও সেটি আবার খারাপ হয়ে গিয়েছে। ফলে পানীয় জলের সমস্যায় ভুগছে ৬০টি পরিবার। এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য ও প্রধানকে বিষয়টি জানালেও এখন পর্যন্ত কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। বাধ্য হয়ে পানীয় জলের সমস্যা মেটাতে স্টেশনের জলের ওপরে ভরসা করতে হচ্ছে। অবিলম্বে টিউবওয়েলটি মেরামতের দাবি তুলেছেন এলাকাবাসী। এলাকার বাসিন্দা সুনীল রায় ও আনোয়ারা বেগম বলেন, আমাদের কলোনির শেষ প্রান্তে পিএইচইর পাইপলাইন না থাকায় আমাদের জল আনতে ১ কিলোমিটার দূরে যেতে হয়। নতুন নলকূপটি বসানো হলেও সেটির জল পানের অযোগ্য। প্রায় ১৬ দিন ধরে টিউবওয়েলটি খারাপ অবস্থায় পড়ে আছে। আমরা প্রধানকে বিষয়টি লিখিত আকারে জানালেও মেরামতের কোনও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না। অন্য বাসিন্দা জয় রায় বলেন, দুমাস না হতেই এত টাকা খরচ করে বসানো টিউবওয়েলটি খারাপ হয়ে আছে। শীঘ্রই সেটি মেরামত করার ব্যবস্থা নিক স্থানীয় প্রশাসন। স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য উমেশ প্রসাদ বলেন, এলাকার মানুষ বিন্নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানকে লিখিত আকারে জানালেও কলটি মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না। তাঁর অভিযোগ, টিউবওয়েলটিতে নিম্নমানের সামগ্রী লাগানো হয়েছে। বিন্নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান দীপক শ্যাম বলেন, এলাকার বাসিন্দারা  আমাকে বিষয়টি লিখিত আকারে জানিয়েছেন। আমি ধূপগুড়ি বিডিও অফিসে জানিয়েছি। তারাই টিউবওয়েলটি মেরামত করবে। ধূপগুড়ি ব্লক অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করে টিউবওয়েলটি দ্রুত মেরামতের ব্যবস্থা করা হবে।