তুলসিহাটাতে ষাঁড়ের হানায় আহত চার

322

সৌরভ কুমার মিশ্র, হরিশ্চন্দ্রপুর: লকডাউনের মধ্যে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার তুলসিহাটা গ্রামে ষাঁড়ের তাণ্ডবে আতঙ্কিত এলাকাবাসী। গত দুদিন ধরে তুলসিহাটা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বিভিন্ন পাড়াতে পাগলাষাঁড়ের তাণ্ডব চলছে। পাগলাষাঁড়ের আক্রমণে তুলসিহাটা সহ পার্শ্ববর্তী গ্রামের বহু মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। গুরুতরভাবে আহত হয়েছে এক বৃদ্ধা সহ চারজন। এদের মধ্যে একজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদা হাসপাতালে ভর্তি আছেন। দুদিন ধরে এলাকায় তাণ্ডব চালাবার পর আজ ভোর বেলায় ওই ষাঁড়টিকে স্থানীয় সালালপুর গ্রামের ইটভাটাতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

স্থানীয় বাসিন্দা বিনোদ গুপ্তা জানান, গত দুদিন ধরে ওই পাগলা ষাঁড়টি এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি করেছিল। লকডাউনের মধ্যে এমনিতেই তুলসিহাটা এলাকা ফাঁকা। জরুরী প্রয়োজনে যারা বাড়ি থেকে বের হচ্ছিলেন তাদের মধ্যে অনেকেই ওই ষাঁড়ের আক্রমণে মারাত্মকভাবে জখম হয়েছেন। ষাঁড়ের আক্রমণে আহত হয়ে শেখ কামাল নামের এক স্থানীয় আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদা মেডিকেল কলেজে ভর্তি রয়েছেন। স্থানীয় এক বৃদ্ধা নির্মলা গুরুতরভাবে জখম হয়ে নিজের বাড়িতে চিকিৎসাধীন।

- Advertisement -

স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য শশীদেব পান্ডে জানান, করোনার জেরে বাড়ি থেকে বের হতে পারছিলাম না তার ওপর গত দুদিন ধরে এলাকায় ষাঁড়ের লাগাতার আক্রমণের জেরে আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। জরুরী প্রয়োজনেও বাড়ি থেকে বাইরে যেতে পারছিলাম না। আজ সকালে শুনতে পাই তুলসী হাঁটার পার্শ্ববর্তী গ্রাম সালালপুরের একটি ইটভাটাতে ওই পাগলাষাঁড়টিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। ষাঁড়টির মৃত্যু হওয়ায় হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে এলাকাবাসীরা।