গাছ কাটা বন্ধ করতে গিয়ে আক্রান্ত বনকর্মী, গ্রেপ্তার ২

293

বর্ধমান, ২ মেঃ গাছ কাটতে বাঁধা দেওয়ায় বনকর্মীদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগে ২জন গ্রেপ্তার হলেন। ধৃত ঠাকুর সরেন ও ঠাকুর মুর্মু পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম থানার উপরডাঙার বাসিন্দা। আউশগ্রাম থানার পুলিশ শুক্রবার রাতে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে। শনিবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়েছে। সিজেএম রতন কুমার গুপ্তা ধৃতদের বিচার বিভাগীয় হেপাজতে পাঠিয়ে, সোমবার ফের আদালতে পেশ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ সূত্রের খবর, আউশগ্রাম থানার উপরডাঙায় বননবগ্রাম স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পেছনে বন দপ্তরের অনেক গাছ রয়েছে। সেখানকার বেশকিছু গাছ ঠাকুর মুর্মু কেঁটে নিচ্ছিল। খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে ফরেস্ট গার্ড প্রসেনজিৎ শিকদার দপ্তরেরই এক দিনমজুরকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে যান। তাঁরা ঠাকুর মুর্মুকে গাছ কাটা বন্ধের নির্দেশ দেন। অভিযোগ, এরপরই রেগে গিয়ে ঠাকুর মুর্মু ও ঠাকুর সরেন বন দপ্তরের আধিকারিকদের কুড়ুল নিয়ে তাড়া করে। এমনকি প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়।

- Advertisement -

খবর পেয়ে সংশ্লিষ্ট বিট অফিসের কয়েকজন কর্মী সেখানে পৌঁছান। তখন ঠাকুর এবং তার ওই সহযোগী বিট অফিসের কর্মীদের মারধোর শুরু করে। বিট অফিসার আসরাফুল ইসলাম ঘটনার সবিস্তার জানিয়ে ওই দিনই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে আউশগ্রাম থানার পুলিশ ২ জনকে গ্রেপ্তার করে, সরকারী কর্মীকে কাজে বাঁধা দেওয়া, মারধর ও ফরেস্ট অ্যাক্টে মামলা রুজু করেছে।