বিহার, উত্তর প্রদেশের পর এবার মধ্যপ্রদেশ, নদীতে ভাসছে দেহ

82

ভুপাল: বিহার, উত্তর প্রদেশের পর এবার মধ্যপ্রদেশেও নদীতে ভেসে এল দেহ। পান্না জেলার রুঞ্জ নদীতে প্রাথমিকভাবে দুটি দেহ ভেসে আসার কথা বলা হলেও স্থানীয়দের দাবি, ৪-৫টি দেহ তাঁরা দেখতে পেয়েছেন। করোনায় মৃত্যুর পর দেহ সৎকার না করে নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রশাসনের দাবি, দুটি দেহের খোঁজ মিলেছে। মৃতদের সঙ্গে কোভিডের কোনও সম্পর্ক নেই। দু’জনেরই মৃত্যুর কারণ ভিন্ন।

করোনা আবহে বিহার, উত্তর প্রদেশে নদীতে একের পর এক দেহ ভেসে আসার ছবি ঘিরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। করোনা সংক্রমণের ভয়ে শিউরে ওঠেন বাসিন্দারা। এবার তাতে নাম জুড়ল মধ্যপ্রদেশের। পান্নার ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর জানান, দুটি দেহের খোঁজ মিলেছে। মৃতদের একজন ক্যানসার আক্রান্ত হয়েছিলেন। অন্যজনের বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। বয়সজনিত কারণে তাঁর মৃত্যু হয়। দু’জনেরই বাড়ি নন্দনপুর গ্রামে। গ্রামের প্রধানের দাবি, দীর্ঘদিনের প্রথা মেনে সৎকার না করে দেহ নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরে অবশ্য দেহ দুটি উদ্ধার করে কবর দেওয়া হয়।

- Advertisement -