চতুর্থ টেস্টেও স্পিন পিচ, জোড়া বদলের সম্ভাবনা

আহমেদাবাদ : চতুর্থ তথা সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচেও স্পিন-স্ট্র‌্যাটেজি বদলাচ্ছে না ভারতের। ইংল্যান্ড শিবির যতই স্পিন-পিচ নিয়ে বিতর্ক তৈরি করুক, জো রুট, জনি বেয়ারস্টোদের জন্য থাকছে স্পিনের চ্যালেঞ্জই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, বিরাট কোহলি-রবি শাস্ত্রীরা ন্যূনতম সুযোগ দিতে নারাজ প্রতিপক্ষকে। তাই ব্যাটিং সহায়ক পিচের কোনও সম্ভাবনা নেই। টার্নিং উইকেটই হচ্ছে ৪ ফেব্রুয়ারি শুরু চতুর্থ টেস্টের জন্য।

গোলাপির জায়গায় লাল বল। দিনরাতের পরিবর্তে দিনের ম্যাচ। বল আর আবহে বদল ঘটলেও, মাঝের বাইশ গজের চ্যালেঞ্জটা একইরকম। দুদিনে শেষ হওয়া তৃতীয় টেস্টের মতো প্রায় একই ধরনের পিচ অপেক্ষা করবে ইংল্যান্ডের জন্য। সিরিজের পাশাপাশি মূল লক্ষ্য টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করা। চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থাকা ভারতকে কোনওভাবে এই ম্যাচ হারা চলবে না। যা নিশ্চিত করতে স্পিন ট্র‌্যাকেই আস্থা বিরাটদের। যা পূরণের দায়িত্বে পিচ প্রস্তুতকারক আশিস ভৌমিকরা।

- Advertisement -

তৃতীয় টেস্টের পিচে ঘাশের লেশমাত্র চিহ্ন ছিল না। তবে চতুর্থ ম্যাচের পিচে এখনও পর্যন্ত হালকা ঘাসের আস্তরণ উঁকি মারছে। যদিও বৃহস্পতিবার ম্যাচের দিন তা থাকার সম্ভাবনা ক্ষীণ। সূত্রের দাবি, আগামী দুদিনে পিচে কাঁচি চলবে। সবুজ-নিধনে বোল্ড লুকটাই দেখা যাবে টসের সময়। ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টও তেমনটাই চাইছে।

এদিকে, ভারতীয় দলে জোড়া বদল অবশ্যম্ভাবী। পারিবারিক কারণে চতুর্থ টেস্টে নেই জসপ্রীত বুমরাহ। অপরদিকে তৃতীয় ম্যাচে স্পিন ট্র‌্যাকেও ওয়াশিংটন সুন্দরকে সেভাবে ব্যবহার করা যায়নি। সুন্দরের জায়গায় থিঙ্কট্যাঙ্ক ফের সুযোগ দিতে চান চায়নাম্যান বোলার কুলদীপ যাদবকে। রবিচন্দ্রন অশ্বীন, অক্ষর প্যাটেলের সঙ্গে তৃতীয় স্পিনারের দায়িত্ব সামলাবেন কুলদীপ। বুমরাহ-র পরিবর্তে অভিজ্ঞ উমেশ যাদবকে সম্ভবত দেখা যাবে ইশান্ত শর্মার পেস-পার্টনার হিসেবে। চোটের জন্য অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝপথেই ছিটকে গিয়েছিলেন উমেশ। মোতেরায় কামব্যাক প্রায় নিশ্চিত। মহম্মদ সিরাজ দৌড়ে থাকলেও, উমেশের অভিজ্ঞতা অগ্রাধিকার পাচ্ছে।

দু-দিনের বিশ্রাম কাটিয়ে গতকাল থেকে প্র‌্যাকটিসে ভারতীয় দল। এদিনও ব্যতিক্রম হল না। ফিল্ডিং কসরত, ক্লোজ ক্যাচিং, হাই ক্যাচিংয়ের পাশাপাশি লম্বা নেট সেশন। আজিঙ্কা রাহানেকে বাড়তি সময় নিলেন ব্যাটিংয়ে। কিছুটা খোশ মেজাজে রোহিত। গত দুই টেস্টে দলের সর্বোচ্চ স্কোরার। একইভাবে সিরিজে এগিয়ে থাকা এবং বিধ্বস্ত প্রতিপক্ষফুরফুরে মেজাজের ছবি ভারতীয় দলেও।

সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভারতীয় তারকারা রীতিমতো ভাইরাল। গতকাল হার্দিক পান্ডিয়ার একটি সুপারম্যানসুলভ ক্যাচ প্রশংসা কুড়িয়েছে। হাই-ক্যাচিং প্র‌্যাকটিসে প্রায় উড়ে গিয়ে ওয়ান-হ্যান্ডেড ক্যাচ ধরেন বাউন্ডারি লাইনে। আজ আবার বিরাট কোহলির পোস্ট করা একটি ছবি ঘিরে সমান উৎসাহী ক্রিকেট ভক্তরা। বিরাট যেখানে মজা করে জানিয়েছেন, কারা তাদের জীবন দুর্বিসহ করে তুলেছেন! সেই দুজনের ছবি পোস্ট করে সবার সঙ্গে পরিচয়ও করে দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। তাঁরা হলেন দলের স্ট্রেংথ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ নিক ওয়েব ও সোহম দেশাই! ফিটনেস অনুশীলনে দুজনের কড়া অনুশাসনের কথা তুলে ধরে বিরাট লিখেছেন, জিমে এই দুজন আমোর জীবন কঠিন করে তোলে। অবশ্য এরজন্য মাঠে আমাদের কাজটা সহজ হয়ে যায়।