ব্যাঙ্কে জাল নোট জমা দিয়ে গ্রেপ্তার দুই গ্রাহক

212

বর্ধমান: ঋণ শোধের অছিলায় রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাঙ্কের ক্যাশকাউন্টারে জাল নোট জমা করার অভিযোগে গ্রেপ্তার এক মহিলা সহ দুই গ্রাহক। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামের। ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে কেতুগ্রাম থানার পুলিশ দুই গ্রাহক মাম্পি বিশ্বাস ও রাকিবুল হাসানকে গ্রেপ্তার করে। কেতুগ্রামের খলিপুরে তাঁদের বাড়ি। শনিবার ধৃতদের কাটোয়া মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়। বিচারক মাম্পিকে ৪ দিন ও রাকিবুলকে ৭ দিন পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, স্বর্ণঋণ শোধ করার জন্য শুক্রবার রাকিবুল হাসান ও তাঁর আত্মীয় মাম্পি বিশ্বাস কেতুগ্রামের রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাঙ্ক শাখায় যান। তারা ব্যাঙ্কের ক্যাশ কাউন্টারে ১ লাখ ২৫৮ টাকা জমা করেন। ক্যাশিয়ার ওই টাকা গুলি পরীক্ষার সময় ১৬ টি জাল ৫০০ টাকার নোট পান। এরপরেই ক্যাশিয়ার গ্রাহক রাকিবুলের কাছে জানতে চান এত জাল নোট কোথা থেকে পেলেন? এই প্রশ্ন শুনেই রাকিবুল হাসান ও মাম্পি বিশ্বাস জাল নোটের কথা অস্বীকার করে ক্যাশিয়ারের সঙ্গে তর্কবিতর্ক জুড়েদেন। এরপর ব্যাঙ্ক ম্যানেজার ওই দুই গ্রাহকের সঙ্গে কথা বলেন। দুই গ্রাহকের কথায় অসংগতি ধরা পড়ার পর ব্যাঙ্ক ম্যানেজার নিজেই দুই গ্রাহকের বিরুদ্ধে কেতুগ্রাম থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে কেতুগ্রাম থানার পুলিশ দুই গ্রাহককে গ্রেপ্তার করে।

- Advertisement -