ছাত্র পরিষদ-তৃণমূল ছাত্র পরিষদ সংঘর্ষে জখম দুই

114

চাঁচল: ছাত্র পরিষদ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ সংঘর্ষে জখম হলেন দুজন। সোমবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে চাঁচল কলেজে। ঘটনার জন্য ছাত্র পরিষদ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ একে অপরকে দায়ী করেছে। অভিযোগ, কলেজে বহিরাগত ছাত্র প্রবেশের জেরেই ঝামেলার সূত্রপাত। জখমদের চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে গিয়েছে চাঁচল থানার পুলিশ। এই মুহূর্তে কলেজের বাইরে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন কয়েকজন বহিরাগত যুবক চাঁচল কলেজের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে। যা নিয়েই গণ্ডগোলের সূচনা। গণ্ডগোলের জেরে ছাত্র পরিষদ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুজন জখম হয়েছেন।

- Advertisement -

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সাধারণ সম্পাদক বাবু সরকারের অভিযোগ, এদিন ছাত্র পরিষদের নেতৃত্বে কয়েকজন বহিরাগত যুবক কলেজ চত্বরে ঢুকে পড়ে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের তরফে বহিরাগতদের কলেজে ঢুকতে বাধা দেওয়া হলে ছাত্র পরিষদের একাংশ কর্মী- সমর্থক তাঁদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। লাঠি দিয়ে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ বাবু সরকারের।

যদিও ছাত্র পরিষদের নেতা দিলু কাজি টিএমসিপির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন। তাঁর পালটা অভিযোগ, কিছু বহিরাগতকে নিয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ চাঁচল কলেজকে ক্লাবে পরিণত করেছে। যাঁরা পড়াশোনা করছেন না তাঁরা কলেজে ঢুকে মেয়েদের উত‍্যক্ত করছেন। এদিন তারই প্রতিবাদ জানায় ছাত্র পরিষদ। অভিযোগ, সেসময় সংগঠনের কর্মীদের ওপর লাঠি নিয়ে হামলা চালান টিএমসিপির সমর্থকরা। এতে বেশ কয়েকজন সিপি সমর্থক জখম হয়েছেন। চাঁচল থানায় এবিষয়ে অভিযোগ জানানো হবে।

চাঁচল কলেজের টিচার ইন চার্জ (টিআইসি) নুরুল ইসলাম জানান, তিনি অফিশিয়াল কাজে ব্যস্ত ছিলেন। বাইরে কী হয়েছে, সেটা তাঁর জানা নেই। কোনও পক্ষই এব্যাপারে তাঁকে কিছু জানায়নি। অন্যদিকে, চাঁচল থানার পুলিশ তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে।