মহিলাদের জড়িয়ে বিএসএফের বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্য উদয়নের

164

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: বিএসএফের এক্তিয়ার বাড়ানোর প্রস্তাব পাশ হয়েছে রাজ্য বিধানসভায়। আর এই প্রস্তাবের উপর আলোচনায় অংশ নিতে গিয়ে একের পর এক বোমা ফাটিয়েছেন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ। এদিন তিনি বলেন ‘তল্লাশির নামে ছেলের সামনে যখন বাবাকে কান ধরে ওঠবস করানো হয়। মা-এর গোপন জায়াগায় হাত দেওয়া হয়। তখন ওই ছেলে দেশপ্রেমিক হতে পারে না। ওর কানের কাছে আপনারা যতই ভারত মাতাকি জয় বলুন, সে কিন্তু দেশপ্রেমিক হবে না।’ আর এতেই কার্যত স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছে বিভিন্ন মহল। দেশের অন্যতম সুরক্ষা বাহিনীর বিরুদ্ধে এহেন অভিযোগের উত্তর দিতে দেরি করেনি বিএসএফ। তাদের তরফেও বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়, ‘পেশাদার বাহিনী হিসেবে সব নিয়ম মেনে কাজ করে বিএসএফ। মহিলাদের তল্লাশির সময় মহিলা জওয়ানদের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক।’ স্বাভাবিকভাবেই বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগের কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বিজেপিও। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারির অভিযোগ, নিছক মুসলিম তোষণ করতে গিয়ে দেশের বাহিনীকে অশালীন আক্রমণ করছে তৃণমূল। উদয়নের নাম না করে শুভেন্দু বলেন, ‘৮৭ শতাংশ ভোট লুঠ করে হওয়া বিধায়ক এমনভাবে কথা বলছিলেন মনে হচ্ছিল যেন আফগানিস্তানে বসে আছি।’ যদিও বিরোধী দলনেতার দাবি খণ্ডন করে পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা বিএসএফের বিরুদ্ধে নই, কেন্দ্র যেভাবে যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো ভেঙে দিয়ে বিএসএফের এক্তিয়ার বৃদ্ধি করতে চাইছে আমরা সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে।’