বিক্রি করতে পারেনি, ‘টমেটো’ রাস্তায় ফেলে বিক্ষোভ কৃষকদের

169

কামাখ্যাগুড়ি: টমেটো বিক্রি করতে না পেরে কামাখ্যাগুড়ি বাজার চৌপথিতে রাস্তায় ফেলে বিক্ষোভ দেখাল কৃষকরা। শনিবার সকালে কামাখ্যাগুড়ির ঘটনা। অভিযোগ, এদিন সকালবেলা পাইকারি সবজি বাজারে কয়েকশো কুইন্টাল টমেটো আমদানি হয়। টমেটো বাজারে তুলে কৃষকরা ন্যায্যমূল্য পাওয়া তো দূরের কথা।  জলের দরে এক টাকা কেজি দরেও বিক্রি করতে পারলেন না।  কৃষকরা। কয়েক ঘন্টা অপেক্ষা করেও টমেটো  বাজারে তোলার খরচ তুলতে নে পেয়ে ক্ষোভে ফেটে পরেন কৃষকরা।  পাইকারি বাজার থেকে টমেটো তুলে নিয়ে বাজার চৌপথির মুল রাস্তার উপড় ফেলে বিক্ষোভ দেখান কৃষকরা।

টমেটো কেনার পাইকাররা এদিন বাজারে আসেনি। ফলে বাজারে আমাদানি টমেটো এক কানা কড়িও কেনেবেচা হয়নি। ক্ষোভে টমেটো পাইকারি বাজার থেকে তুলে বাজার চৌপথিতে কামাখ্যাগুড়ি বারোবিশা রাজ্য সড়কে টমেটো ফেলার কারনে অবরুদ্ধ হয়ে পরে রাস্তা।  রাস্তার দাঁড়িয়ে পরে বহু গাড়ি। ঘটনাস্থলে কুমারগ্রাম থানার পুলিশ। টমেটোর বাজার স্বাভাবিক করার প্রশাসনের আশ্বাসে বেলা এগারোটা নাগাদ বিক্ষোভ তুলে নেয় কৃষকরা। রাস্তায় পরে থাকা টমেটো তুলে বাইরে ফেলার পর স্বাভাবিক হয় যান চলাচল।

- Advertisement -

কৃষকদের অভিযোগ, কামাখ্যাগুড়ি এক শ্রেনীর ব্যবসায়ী বাইরের ব্যবসায়ীদের বাজারে ঢুকতে দেয় না। কয়েকজন ব্যবসায়ীর উপড়েই চলে টমেটোর কেনাবেচা। ওনাদের নির্ধারিত দামেই বিক্রি করতে হয়। এদিন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা টমেটো কিনেনি। বাজারে  অন্য কোনো পাইকারও ছিল না। ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করেও কৃষকরা এক টাকা দরে দিতে চাইলেও  টমেটো  নেওয়ার কেউ ছিল না এদিন বাজারে।  ন্যয্যমূল্য তো দুরের কথা বাজারে তোলার খরচ জোগার করতে না পেয়ে ক্ষোভে কৃষকরা কামাখ্যাগুড়ি বাজার চৌপথিতে কামাখ্যাগুড়ি-বারোবিশা রাজ্য সড়কের টমেটো ফেলে বিক্ষোভ দেখায় কৃষকরা। তাদের দাবি, বাইরের ব্যবসায়ীদের কামাখ্যাগুড়ি বাজার থেকে মালপত্র কেনাবেচার ব্যবস্থা করতে হবে। কৃষকদের কাছে থাকা টমেটো বিক্রির অবিলম্বে ব্যবস্থা করতে হবে। মাল্টিপারপাস হিমঘর চালু করার দাবিও তোলেন কৃষকরা।

কৃষক শ্যামল বিশ্বাস অভিযোগ করে জানান, বাইরের থেকে ব্যবসায়ীরা আসতে না পারায় আজকের বাজারে টমেটো বিক্রি হয় নাই। ঠেলা,  ভ্যান,  টোটোয় ভারা পর্যন্ত মেটাতে সম্ভব হয়নি। বাধ্য হয়েই কৃষকরা টোমেটো ফেলে বিক্ষোভ দেখান।

কৃষকদের অভিযোগ মানতে চাননি ব্যবসায়ী সমিতি। কামাখ্যাগুড়ি পাইকারি সবজি ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক চন্দন সাহা জানান, হোলির সময় প্রতি বছর ভিন রাজ্যের মান্ডি বন্ধ থাকে। আর ব্যবসায়ীরাও আসে না। এই এলাকায় যত টমেটো হয় সবিই বাইরের রাজ্যেই যায়। বাইরের বাজার বন্ধ থাকার কারণে আজকে টমেটো কেনাবেচা হবে না কৃষকদের জানানো হয়েছিল। তা সত্বেও কৃষকরা বাজারে তোলায় কেনার লোক ছিল না। কিছু কৃষকের উস্কানিতে এই ঘটনা ঘটেছে। তিনি আরও জানান,  রবিবার থেকেই মোটামুটি ভাবে স্বাভাবিক হচ্ছে বাজার। কম বেশি কেনাবেচা হবে।

এদিকে কামাখ্যাগুড়ি পুলিশ জানায়, রাস্তায় টমেটো ফেলার কারনে কিছুক্ষন রাস্তা বন্ধ থাকে। রাস্তা থেকে টমেটো তুলে ফেলার পর স্বাভাবিক হয় যানবাজন চলাচল।