ওয়েব ডেস্ক, ২ ফেব্রুয়ারিঃ ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগের শেষবারের মতো বাজেট পেশ করতে যাচ্ছেন মোদি সরকারের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। সকালে ১১ টায় সংসদে তাঁর ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরের বাজেট পেশ করার কথা। জিএসটি এবং নোটবন্দির পর এটাই অর্থমন্ত্রীর প্রথম বাজেট। আর্থিক সংস্কারের সাফল্যে তিনি কীভাবে বাজেটে তুলে ধরেন তা দেখার অপেক্ষায় রয়েছে দেশের শিল্পমহল। একই সঙ্গে দেশের কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারিরা চেয়ে আছেন সপ্তম বেতন কমিশনের সুপারিশ কেন্দ্রীয় সরকার কতটা কার্যকর করে, সেদিকে। দেশের সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা আয়কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বাড়বে। প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রী দুজনেই জানেন এই বাজেটের উপর আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচন অনেকটা নির্ভর করবে।

গত বারের মতোই এবারও কেন্দ্রীয় বাজেটের মধ্যেই থাকছে রেল বাজেট। দেড় লক্ষ কোটি টাকার রেকর্ড মূলধনী ব্যয়বরাদ্দ হতে পারে রেলের জন্য। যার সিংহভাগই পরিকাঠামো উন্নয়নে। বুলেট ট্রেন থেকে শুরু করে সেমি হাইস্পিড ট্রেন চালানোর জন্য ট্র্যাক এবং সিগন্যাল ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন দরকার বলে মনে করছেন প্রযুক্তিবিদরা। তবে, রাজ্যের ভাগে নতুন কী প্রকল্প এল সেদিকেও কড়া নজর রাখবে এনডিএ শরিকরা থেকে শুরু করে বিরোধীরাও।

ছবিঃ সংসদে বাজেট পেশ করতে অর্থ মন্ত্রক থেকে রওনা হলেন অরুণ জেটলি।–সংগৃহীত চিত্র