বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের তীব্র নিন্দা আমেরিকার

146

ঢাকা ও ওয়াশিংটন: বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাল আমেরিকা। বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বাইডেন প্রশাসন। মার্কিন বিদেশ দপ্তরের তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছে, ধর্মীয় স্বাধীনতা প্রতিটি মানুষের অধিকার। বিশ্বের প্রতিটি মানুষের নিরাপদে নিজের ধর্মীয় উৎসব পালনের অধিকার রয়েছে। বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা করছে আমেরিকা।

উল্লেখ্য, কুমিল্লায় কোরান অবমাননার অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। মণ্ডপে হামলা চালানোর পাশাপাশি চলছে সংখ্যালঘু নির্যাতন। যদিও ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে শেখ হাসিনা সরকার। তবে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনে চিন্তিত পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দারা।

- Advertisement -

কোরান অবমাননার অভিযোগ তুলে বুধবার দিনের বেলা কুমিল্লার বেশ কয়েকটি পূজা মণ্ডপে হামলা চালানো হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় উস্কানির জেরে বিষয়টি আরও জটিল আকার নেয়। সেদিন রাতে নোয়াখালির হাতিয়া এবং চট্টগ্রামের বাঁশখালিতে মন্দিরে হামলা চালায় উন্মত্ত জনতা। বুধবার রাতের হামলায় চারজনের মৃত্যু হয় বলে সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর।

এছাড়া নবমীর রাতে বাংলাদেশের একাধিক পুজোমণ্ডপে হামলা চালানো হয়। শুক্রবার অর্থাৎ বিজয়া দশমীতে নোয়াখালি জেলার ইসকন মন্দিরে হামলা চালানোর পাশাপাশি পার্থ দাস নামে মন্দিরের এক সদস্যকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ। হামলার বিষয়টি টুইটে জানিয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। হাসিনা সরকারের কাছে তারা সংখ্যালঘুদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া ও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রামের বাঁশখালি, চাঁদপুরের হাজিগঞ্জ, শিবগঞ্জ ও কক্সবাজারের পেকুয়ার একাধিক মন্দিরেও হামলা হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় উসকানিমূলক পোস্টের জেরে সমস্যা আরও বেড়েছে বলে অভিযোগ। ঘটনার জেরে রীতিমতো আতঙ্কিত বাংলাদেশের সংখ্যালঘুরা।

তবে কুমিল্লার মণ্ডপে হামলার ঘটনায় দ্রুত তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানিয়েছেন, দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। তাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে।