বিয়ের কুড়ি দিনের মাথায় বধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য

565
প্রতীকী ছবি।

হেমতাবাদ: বিয়ের কুড়ি দিনের মাথায় অস্বাভাবিক মৃত্যু হল এক গৃহবধূর। রবিবার হেমতাবাদ থানার চৈনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের নউদা এলাকায় এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নামা কৃষ্ণ বর্মন (১৮)। রবিবার দুপুরে ওই বধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি মাঠে কাজে ব্যস্ত ছিলেন। মাঠ থেকে ফিরে এসে তাঁরা দেখেন, শোবার ঘরের দরজা বন্ধ। দরজা ভেঙে তাঁরা নববধূর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দিন কুড়ি আগে কিলন গ্রামের বাসিন্দা কৃষ্ণা বর্মনের সঙ্গে নওদা গ্রামের বাসিন্দা রাসেল বর্মনের বিয়ে হয়। রাসেল পেশায় রাজমিস্ত্রি। কাজ না থাকলে তিনি নিজেদের জমিতে চাষাবাদ করেন।

মৃতার স্বামী রাসেল বর্মন বলেন, ‘এদিন সকালে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসি। এরপর আমরা মাঠে চলে যাই। বাড়ি ফিরে দেখি, স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে।’ মৃতার দাদা নারায়ণ বর্মন বলেন, ‘২০ দিন আগে বোনের বিয়ে হয়। আমার বোনের সঙ্গে বোন জামাইয়ের কোনও ঝামেলাও হয়নি। কী কারণে ও এরকম করল তা বুঝে উঠতে পারছি না।’

হেমতাবাদ থানার ওসি দিলীপ রায় বলেন, ‘বিয়ের কুড়ি দিনের মাথায় এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।’