কিশোরের রহস্য মৃত্যুতে চাঞ্চল্য দুই গ্রামে

513

রাঙ্গালিবাজনা: কিশোরের রহস্য মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়াল দুই গ্রামে। আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট থানার দক্ষিণ খয়েরবাড়ির কিশোর সদ্য উচ্চ মাধ্যমিক পাশ সৌমিত্র বর্মনের মৃতদেহ শনিবার ফালাকাটা ব্লকের উত্তর দেওগাঁওয়ের শ্মশানঘাট থেকে উদ্ধার হয়। তাঁর গলায় পাটের আঁশ প্যাঁচানো থাকলেও মৃতদেহটি মাটিতে পড়ে ছিল। পাটের আঁশের একপ্রান্ত বাঁধা ছিল সেগুন গাছে। রহস্য ঘনিয়েছে এতেই। ঘটনায় প্রেমে প্রত্যাখ্যান ও ফেসবুকে একটি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়ও সামনে এসেছে ইতিমধ্যে। যৌথভাবে ঘটনার তদন্তে নেমেছে মাদারিহাট ও ফালাকাটা থানা। মাদারিহাট থানা সূত্রের খবর, তদন্তের স্বার্থে ইসলামাবাদ গ্রামের একটি মেয়ের বাবা ও মা’কে থানায় ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, ইসলামাবাদ গ্রামের একটি মেয়ের বাবা ও মা শুক্রবার তাঁদের বাড়িতে পৌঁছে সৌমিত্রকে খোঁজাখুঁজি করে এবং ফেসবুকে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলার অভিযোগ তুলে হুমকি দেয়। সৌমিত্র সেসময় বাড়িতে ছিল না। মোবাইল ফোনে ঘটনার খবর পেয়ে সৌমিত্র আর বাড়ি ফেরেনি। সকালে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। তাঁর দেহের অবস্থান, পাটের আঁশ গাছের যে জায়গায় বাঁধা ছিল তার উচ্চতা সহ নানা দিক খতিয়ে দেখে পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, এটি কোনওভাবেই আত্মহত্যার ঘটনা হতে পারে না। মৃত্যুর পেছনে রহস্য রয়েছে। এদিকে মেয়েটির পারিবার সূত্রে খবর, প্রেমে প্রত্যাখ্যানের পর সৌমিত্র ওই মেয়েটির নামে ফেসবুকে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলে এবং তাতে ওই মেয়েটির এবং নিজের ছবিও পোস্ট করে। পরে অবশ্য অ্যাকাউন্টের নাম পালটে দেয় ও ছবিও ডিলিট করে দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য আলিপুরদুয়ারে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -