বেসরকারি কারখানায় শ্রমিকের অস্বাভাবিক মৃত্যু

246

দূর্গাপুর: পশ্চিম বর্ধমান জেলার দূর্গাপুরের বাঁশকোপা শিল্পতালুকের এক বেসরকারি কারখানায় সোমবার ভোরে এক শ্রমিকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায়।

কারখানার শ্রমিকদের একাংশের অভিযোগ, বিষাক্ত গ্যাস লিক করেই মৃত্যু হয়েছে এই শ্রমিকের। কারখানা কর্তৃপক্ষ অবশ্য এই বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ। আসানসোলের কুলটি থানার নেহেরু পার্ক এলাকার বাসিন্দা মৃত শ্রমিকের নাম ধর্মেন্দ্র যাদব (৩৯)।

- Advertisement -

এই ঘটনা নিয়ে দূর্গাপুরের মহকুমাশাসক অনির্বাণ কোলে বলেন, এই ধরনের কোনও অভিযোগ তার কাছে আসেনি। তবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে ঠিক কী ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ জানায়, দেহের ময়নাতদন্ত ছাড়া বলা যাবে না কিভাবে মৃত্যু ঘটেছে। এদিকে, অন্য একটি সূত্রের খবর, কারখানা কর্তৃপক্ষ ক্ষতিপূরণ ও শ্রমিকের পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়ার বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন ভোরবেলা বেসরকারি ইস্পাত কারখানার শ্রমিক কুলটির বাসিন্দা ধর্মেন্দ্র যাদব কারখানার ভেতরে শৌচালয়ে যায়। বেশ কিছুক্ষন পরে দেখা যায় ধর্মেন্দ্র সেখানে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে আছেন। খবর পেয়ে কারখানার অন্য শ্রমিকরা কারখানায় চলে আসেন৷

শ্রমিকদের একাংশের দাবি, এই শৌচালয়ের পাশ দিয়েই কারখানার ব্লাষ্ট ফার্নেসের কাজে ব্যবহৃত গ্যাসের পাইপ লাইন গিয়েছে। সেই পাইপলাইনের কোথাও লিক থাকায় গ্যাস বের হয়ে ধর্মেন্দ্র যাদবের মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ আসে। মৃতদেহটি কারখানা থেকে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে আসা হয় দূর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে।

খবর পেয়ে দূর্গাপুরে ছুটে আসেন আসানসোল পুরনিগমের ৬৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার আখতার হোসেন। তিনি মৃত শ্রমিকের জন্য ক্ষতিপূরণের দাবি করেছেন।