যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য

264

হেমতাবাদ: এক যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে হেমতাবাদে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘ এক বছর যাবৎ ক্যান্সারে ভুগছিলেন ওই যুবক। সেই যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে বাড়ির অদূরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। মৃতের নাম সঞ্জিত বর্মন (২০)। বাড়ি হেমতাবাদ থানার বাঙাল বাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাতসিয়ায়। হেমতাবাদ থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। বুধবার বিকেলে দেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

মৃতের ভাই বৃন্দাবন বর্মন বলেন, ‘দীর্ঘ দুই বছর যাবৎ গলার থাইরয়েড গ্রন্থিতে টিউমার হয় সেটি অপারেশন করা হয় ব্যাঙ্গালোরে এরপর ক্যান্সার ধরা পড়ায় বোম্বে তে চিকিৎসা চলছিল। এর মধ্যে যাওয়ার কথা ছিল। গলার ঘায়ের সেই যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে আমার দাদা।’

- Advertisement -

স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য রোসনা রাজবংশী বলেন, ‘মৃত যুবক পেশায় আলমারী মিস্ত্রী ছিলেন। ক্যান্সার ধরা পড়ায় জমি বিক্রি করে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। তাঁর চিকিৎসা করাতে গিয়ে পরিবারকে পথে বসতে হয়। বুধবার সকালে বাড়ির অদূরে একটি আম গাছে ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায় গ্রামবাসীরা। হেমতাবাদ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু হয়েছে।’