তিন আদিবাসী যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যু

750

সিউড়ি: একই দিনে দুটি পৃথক জায়গায় তিন আদিবাসী যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়াল বীরভূমে। মৃতের পরিবারের দাবি তিন যুবককে খুন করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতরা সমর হাঁসদা(৩৫), মিলন হেমরম (৩৫) ও রতন সোরেন(২৫)। সমরের বাড়ি মহম্মদ বাজার থানার মহুলবাগান গ্রামে। বুধবার ভোরের দিকে ৬০ নম্বর জাতীয় সকড়ের পাশে শেওড়াকুঁড়ির কাছে একটি পরিত্যক্ত হোটেলের বারান্দা থেকে তার রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার মাথায় ক্ষতচিহ্ন ছিল। তিনি পেশায় দিনমজুরের কাজ করতেন। পাশাপাশি গাড়িতে খালাসির কাজও করতেন। মৃতের ভাই বাবু হাঁসদার দাবি, দাদার মাথায় পাথর দিয়ে থেঁতলে খুন করা হয়েছে।

- Advertisement -

অন্যদিকে, সিউড়ি ২ নম্বর ব্লকের পাঁড়ুই থানার ইমাদপুর গ্রামের রাস্তার ধার থেকে মিলন ও রতনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। মিলনের বাড়ি একই থানার বলাইপুর গ্রামে। রতন বড়াল গ্রামের বাসিন্দা। পুলিশের দাবি, একটি লরিতে তাদের ধাক্কা মেরেছে। ঘাতক গাড়িটিকে আটক করা হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দু’জনেই ইমাদপুরে নিকট আত্মীয় বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলেন। তারপরেই তাদের মৃত্যু সংবাদ পাওয়া গিয়েছে। এদিকে মহম্মদ বাজারে খুনের ঘটনায় পুলিশ দু’ জনকে আটক করেছে।