পুলিশের মারে হত মাংস ব্যবসায়ী

143

লখনউ, ২২ জুনঃ গোমাংস বিক্রি করার সন্দেহে এক মাংস ব্যবসায়ীকে বেধড়ক মারধর করে পুলিশ। গুরুতর আহত মহম্মদ সালিম কুরেশি নামে ওই ব্যবসায়ী বৃহস্পতিবার দিল্লির এইমসে মারা যান। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বরেলিতে। ঘটনায় অভিযুক্ত এক সাব ইনস্পেকটর এবং দুই কনস্টেবলকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে। ওই তিন পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে তোলাবাজি এবং মারধরের অভিযোগও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

বরেলির এসএসপি কালানিধি নাইথানি জানিয়েছেন, নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন এসএসপি। এফআইআরের বয়ান অনুযায়ী, গোহত্যার সঙ্গে যুক্ত সন্দেহে গত ১৪ জুন ওই মাংস ব্যবসায়ীকে তুলে আনার জন্য কাঁকারতোলা থানার স্টেশন হাউস অফিসার আলি মিয়া জাইদি দুই কনস্টেবল শ্রীপাল এবং হরিশ চন্দ্রকে পাঠান।

- Advertisement -

মৃতের পরিবারের অভিযোগ, সে যখন সমস্ত অভিযোগ মানতে অস্বীকার করে তখন তাকে ব্যাপক মারধর করে পুলিশ। মার খেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে সে। তখন তাকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তড়িঘড়ি দিল্লিতে নিয়ে আসা হয় এবং এইমসে ভরতি করা হয়। গতকাল সেখানে তার মৃত্যু হয়। মৃতের পরিবারের লোকজনের অভিযোগ, স্থানীয় কাউন্সিলার আঞ্জুম খানের নির্দেশেই এবং মোটা টাকা তোলার দাবিতে পুলিশ ওই মাংস ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল।