ভোট নিতে এবার প্রবীণ-বিশেষভাবে সক্ষমদের বাড়িতে ভোটকর্মীরা

131
প্রতীকী

রায়গঞ্জ: ভোট দেওয়ার জন্য আর দীর্ঘক্ষণ বুথের সামনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হবে না প্রবীণ ও বিশেষভাবে সক্ষমদের। এবার উত্তর দিনাজপুরের ৪৩ হাজার এরকম ভোটারদের বাড়িতে পৌঁছে যাবেন নির্বাচন কমিশনের কর্মীরা। ভোটকেন্দ্রে না পৌঁছে নিজের বাড়িতেই অনায়াসে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন তাঁরা। এমনকি, ভোটের আগ মুহূর্তে যদি কারও করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে তবে তাঁর বাড়িতে গিয়ে ব্যালট বক্স রেখে আসবেন ভোটকর্মীরা। এই সমস্ত প্রক্রিয়া যদিও সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনেই করা হবে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক দীপঙ্কর পিপলাই। প্রসঙ্গত, জেলার রায়গঞ্জ ও ইসলামপুর মহকুমার ৯টি বিধানসভা কেন্দ্রের মোট ভোটার ২১ লক্ষ ৫৩ হাজারের বেশি।

জেলা নির্বাচন দপ্তর সূত্রে জানানো হয়েছে, জেলায় ৮০ বছর এবং তার ঊর্ধ্বে থাকা মানুষ সহ বিশেষভাবে সক্ষমদের ভোটার রয়েছে ৪৩ হাজার। এর আগে অন্যদের মতোই অসুস্থ বয়স্ক ভোটারদের বুথে গিয়েই ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে হত। কিন্তু আসন্ন বিধানসভা ভোটে অশীতিপর ব্যক্তি এবং বিশেষভাবে সক্ষমদের ভোট নিতে বাড়িতেই আসবেন প্রিসাইডিং অফিসার সহ অন্যান্য ভোটকর্মী। বাড়িতে বুথ তৈরি করে নিজের ভোট গোপন রেখে পোস্টাল ব্যালটে দিতে পারবেন। কিন্তু তারপর অবশ্য পোস্টে পাঠানোর বদলে সেই ভোট খামবন্দি করে গালা দিয়ে সিল করে নিয়ে যাবেন ভোটকর্মীরা। সেখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর এজেন্টও থাকতে পারেন। তবে বিষয়টি নির্বাচন দপ্তরের নিরাপত্তারক্ষীদের ঘেরাটোপে থাকবে। গণনার দিনই সেই পোস্টাল ব্যালট গণনা করা হবে। জেলায় মোট ভোটকর্মী ১৪ হাজার ৭৬৮ জন। অতিরিক্ত বুথ সহ ৩০৭৬টি বুথ গড়া হচ্ছে। তারমধ্যে প্রায় ৩৯১টি বুথ সম্পূর্ণ মহিলা ভোটকর্মী পরিচালিত হবে।

- Advertisement -

কর্ণজোড়ায় জেলাপ্রশাসনের সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অতিরিক্ত জেলাশাসক দীপঙ্কর পিপলাই বলেন, ‘প্রবীণ ও বিশেষভাবে সক্ষমদের সহ করোনা আক্রান্ত জেলার প্রায় ৪০ হাজার ভোটারের বাড়িতে পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোট নিতে পৌঁছোবেন ভোটকর্মীরা।’ সেইসব বিশেষ ভোটারের সংখ্যা পরবর্তীতে বাড়তে পারে বলে জানান অতিরিক্ত জেলাশাসক।