মসজিদের রক্ষণাবেক্ষণে বৈষ্ণব পরিবার, সম্প্রীতির নজির উত্তর দিনাজপুরে

131

বিশ্বজিৎ সরকার, রায়গঞ্জ:

 ‘ফুল পাতিয়ে গোলাপ বেলী
একই মায়ের বুকে খেলি,
পাগলা তারা আল্লা ভগবানে ভাবে ভিন্ন যারা’

- Advertisement -

কবির এই স্বপ্নের সংহতির প্রকৃষ্ট উদাহরণ মহন্ত মসজিদ। উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ শহর লাগোয়া গোয়ালপাড়া গ্রাম। আর এই গ্রামেই রয়েছে মহন্ত মসজিদ। গ্রামের মহন্ত পরিবার মুছে দিয়েছে সব ভেদাভেদ। রাম মন্দির হবে নাকি বাবরি মসজিদ সেই নিয়ে যখন বিতর্ক তুঙ্গে, তখন প্রায় ৫০০ বছরের পুরোনো এই মহন্ত মসজিদ সংহতির প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়ে।

মসজিদের রক্ষণাবেক্ষণে বৈষ্ণব পরিবার, সম্প্রীতির নজির উত্তর দিনাজপুরে| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
রাধাকৃষ্ণ মন্দির আর শতাব্দী প্রাচীন মসজিদ আজও প্রতিবেশী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে ওই গ্রামে। যে মাঠে ধুমধাম করে পালন হয় জন্মাষ্টমী। সেই মাঠেই আবার পবিত্র রমজানের নামাজও পড়া হয়। সুলতানি যুগের এই মসজিদ আর ঠিক তার পাশের ওই মন্দিরের সংরক্ষণের দাবি থেকেই গিয়েছে স্থানীয়দের। সুলতানি যুগের এই জরাজীর্ণ মসজিদে খিলানের কাজগুলো এখনও বোঝা যায়। দেওয়ালে পলেস্তেরা না থাকলেও, এককালে টেরাকোটার উন্নত কাজ যে মসজিদের দেওয়ালে ছিল তা স্পষ্ট।

মসজিদের রক্ষণাবেক্ষণে বৈষ্ণব পরিবার, সম্প্রীতির নজির উত্তর দিনাজপুরে| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

তবে এত কিছুর পরেও এই সুলতানি যুগের মসজিদ হেরিটেজের তকমা পায়নি। মন্দির-মসজিদ সহাবস্থান এবং বৈষ্ণব ধর্মাবলম্বীদের মসজিদ রক্ষণাবেক্ষণের এঈ কাহিনী নজির গড়েছে জেলাতে। জেলার ইতিহাসকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে এবং আগামী প্রজন্মের কাছে সেই সব নিদর্শন টিকিয়ে রাখতেই রাজ্য সরকার ও হেরিটেজ কমিশনকে আর্জি জানিয়েছে স্থানীয়রা।