নর্দমা সাফাইয়ের নামে ভাঙচুর, অভিযুক্ত সিপিএম সদস্য

218

চাঁচল: জেসিবি দিয়ে নর্দমা সাফাই করতে এসে মেশিন ভাঙচুরের অভিযোগ। রবিবার সকালে ওই ঘটনাকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়ায় চাঁচলে। মহকুমা শাসকের নির্দেশ বলে মিথ্যে কথা বলে সিপিএমের এক সদস্যের নেতৃত্বে ওই ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ। সিপিএমের ওই সদস্যকে দাঁড়িয়ে থেকে মদত দিয়েছেন স্থানীয় এক তৃণমূল নেতা এন্তাজ হোসেন। বাড়ির সামনে বসার জায়গা,পাড়ায় ঢোকার রাস্তায় থাকা স্ল্যাব ভেঙে দেওয়া হয়। পরে ব্লক তৃণমূল সভাপতির বাধায় কাজ বন্ধ হয়। এদিকে জেসিবি মেশিনের তান্ডবে বাড়ির দেওয়ালেও ফাটল ধরেছে বলে অভিযোগ। ঘটনার জেরে বাড়িতে ও পাড়ায় যাতায়াতে সমস্যায় পড়েছেন বাসিন্দারা।

বাসিন্দারা জানিয়েছেন, জেসিবি মেশিন দিয়ে যথেচ্ছভাবে ভাঙচুর চালানো হচ্ছিল। নর্দমা সাফাই করার কথা থাকলেও কোনও ট্রলি ছিল না। গ্রাম পঞ্চায়েতের সিপিএম সদস্য মজিমুল হক রব্বানি পাশাপাশি স্থানীয় এক তৃণমূল নেতাকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায়। মহকুমাশাসকের নির্দেশ রয়েছে বলে কোনও কিছুকেই তারা গুরুত্ব দিতে চাননি। তবে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ইন্তাজ হোসেন তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এব্যাপারে চাঁচল-১ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সচ্চিদানন্দ চক্রবর্তী জানান,পঞ্চায়েত কিছুই জানে না। কাদের মদতে এসব হল তা প্রশাসনকে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। চাঁচলের মহকুমাশাসক সঞ্জায় পাল বলেন, ‘এমন কোনও নির্দেশ দেওয়া হয়নি। কারা ওই ঘটনায় জড়িত তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দ্রুত যাতে রাস্তার জঞ্জাল সরিয়ে দেওয়া যায় তা দেখা হচ্ছে।‘

- Advertisement -