নোভির প্রয়াণে স্তব্ধ ফুটবলের কণ্ঠস্বর

নয়াদিল্লি : থেমে গেল ভারতীয় ফুটবলের কণ্ঠস্বর। বৃহস্পতিবার প্রয়াত হলেন ভারতীয় ফুটবলের এনসাইক্লোপিডিয়া নামে খ্যাত নোভি কাপাডিয়া। বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। গত কয়েক বছর স্নাযুর বিরল রোগে ভুগছিলেন।

চূনী গোস্বামী থেকে সুনীল ছেত্রী- ভারতীয় ফুটবলের রংবদলের সাক্ষী ছিলেন নোভি। দিল্লির অশোকা ক্লাবের প্রাক্তন মালিক নোভি খেলেছেন স্থানীয় লিগেও। পেশায় ছিলেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্ত এসজিটিবি খালসা কলেজের ইংরেজির অধ্যাপক। ২০০৩-’১০ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টরের দায়িত্ব সামলেছেন। যদিও তাঁর পরিচিতি ফুটবল ধারাভাষ্যকার হিসেবেই। কলকাতা ডার্বির মতো প্রথমসারীর ম্যাচের আকর্ষণ আরও বাড়িয়ে তুলতেন তিনি। ভারতীয় ফুটবল সম্পর্কিত দীর্ঘ কয়েক দশকের যাবতীয় তথ্যের ভাণ্ডার ছিলেন। ধারাভাষ্যের পাশাপাশি নিয়মিত সংবাদপত্রে ফুটবল নিয়ে কলম ধরেছেন। লিখেছেন একাধিক বইও। অবশ্য শুধু ফুটবলই নয়, অন্যান্য খেলার মাঠেও সাবলীল ছিলেন নোভি।

- Advertisement -

কয়েক বছর আগে বিরল মোটর নিউরন ডিজিজে আক্রান্ত হন নোভি। এই রোগে স্নায়ু ও মস্তিস্ক ধীরে ধীরে কাজ করা বন্ধ করে দেয়। তবে আক্রান্ত হওয়ার পরও নিয়মিতভাবে খেলা সংক্রান্ত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গিয়েছেন। গত দুবছর একপ্রকার বাড়িতেই ছিলেন। হাটতে গেলেও সাহায্য লাগত। শেষ এক মাস ছিলেন ভেন্টিলেশনে। ধারাভাষ্যকার হিসেবে বিভিন্ন ক্রীড়াকর্তা ও রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক ছিল। তবে অবসরের দীর্ঘদিন পরও তাঁর পেনশন চালু করেনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়। প্রায় ৪ দশক এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গেই যুক্তি ছিলেন তিনি।

নোভির প্রয়াণে শোক প্রকাশ করেছে এআইএফএফ। তাদের টুইট, বিখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক, ধারাভাষ্যকার ও ফুটবল বিশেষজ্ঞ নোভি কাপাডিয়ার প্রয়াণে আমরা শোকাহত। ভারতীয় ফুটবলে অনেকেই তাঁর ছোঁয়া পেয়েছে। তাঁদের মধ্যেই নোভির কৃতিত্ব উজ্জ্বল থাকবে। টুইটারে শোক জ্ঞাপন করেছেন প্রাক্তন টেনিস তারকা জয়দীপ মুখোপাধ্যায় সহ অন্যান্য ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব এবং ফুটবল সমর্থকরা।