গঙ্গা ভাঙনে সর্বস্বান্ত গ্রামবাসী, পরিদর্শনে সাবিনা ইয়াসমিন

194

বৈষ্ণবনগর: দফায় দফায় গঙ্গা ভাঙনে সর্বস্বান্ত বৈষ্ণবনগরের ভীমাগ্রাম ও লালুটোলা। রবিবার ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন জনপথ ও সেচ দপ্তরের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন। বৈষ্ণবনগরের মানচিত্র থেকে মুছে যেতে চলেছে বীরনগর ১ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার একটি গোটা বুথ। ভীমা গ্রাম বুথটি গঙ্গা গর্ভে তলিয়ে যেতে বসেছে। ভীমা গ্রাম ও লালুটোলা দুটি গ্রাম মিলিয়ে প্রায় ১৫০টির বেশি বাড়ি গঙ্গায় বিলীন হয়ে গিয়েছে। অথচ ফরাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষের কোনও খেয়াল নেই বলেই অভিযোগ তুলেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, লাগাতার ভাঙন হচ্ছে অথচ ফারাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষের একবারও দেখা মিলছে না। এদিকে ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তদের রাখার কোনও ব্যবস্থা নেই। আবার নতুন করে ভাঙনে বিপাকে পড়েছে এলাকার মানুষজন। ত্রিপল খাটিয়ে কোনও প্রকারে দিনযাপন করছেন প্রত্যেকে। এদিন রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন ভাঙন দুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও দুঃস্থদের সঙ্গে কথা বলেণ। পরিস্থিতি দেখে বীরনগর হাই স্কুল খুলে দেওয়ার নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

- Advertisement -

সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, ‘কয়েক দফা ভাঙনের ফলে সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েছেন ওই এলাকার মানুষজন। দুঃস্থরা দাবি তুলেছেন, পুনর্বাসনের জন্য। আমি ব্লক প্রশাসন ও ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তরের আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছি খুব শীঘ্রই যেন এলাকায় খাস জমি কোথায় আছে তা খুঁজে বের করে আমাকে রিপোর্ট করে। ফারাক্কা ব্যারিজ কর্তৃপক্ষকেও আমরা চাপ দিয়েছি।‘