কোয়ারান্টিন সেন্টারকে কোভিড হাসপাতালে রুপান্তরের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

300

গাজোল: কোয়ারান্টিন সেন্টারকে কোভিড হাসপাতালে রুপান্তর করার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার সকাল থেকে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে গাজোলের করকচ অঞ্চলের উপদেল গ্রাম। স্থানীয়দের দাবি, গ্রামের ভিতরে কোনও ভাবেই কোভিড হাসপাতাল তৈরি করতে দেওয়া হবে না। করোনা আক্রান্তদের সরকারি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করতে হবে। বিকালে কোভিড হাসপাতাল তৈরির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের পর বিক্ষোভ তুলে নেন স্থানীয়রা।

গ্রামের বাসিন্দা অজিত রায় বলেন, পর্যাপ্ত পরিকাঠামো ছাড়ায় গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়কে কোভিড হাসপাতাল বানানো যেতে পারে না। এই রিলিফ সেন্টারে চিকিৎসার ন্যূনতম পরিকাঠামো নেই। অক্সিজেন, ওষুধপত্র কিছুই নেই। ডাক্তার বা নার্সও থাকবে না। তাহলে কীভাবে গ্রামের মধ্যে কোভিড হাসপাতাল থাকতে পারে। তাছাড়া, এখানে প্রায় ৩০ জন গাদাগাদি করে রয়েছেন। সামান্য সামাজিক দূরত্ব মানা হচ্ছে না।

- Advertisement -

প্রবীর রায় বলেন, কারা বাইরে থেকে গ্রামে আসলো তাঁদেরি নামের তালিকা তৈরি করতে পারলেন না আশা কর্মীরা। তাছাড়া, স্কুলের রিলিফ সেন্টারের আবাসিকদের লালার নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করেনি স্বাস্থ্য দপ্তর। কয়েক জন নিজে গিয়ে পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে এসেছে। এরকম পরিস্থিতিতে কীভাবে কোভিড হাসপাতাল তৈরি হতে পারে।

স্থানীয় বিধায়ক দিপালী বিশ্বাস বলেন, ওই সেন্টারে করোনা আক্রান্তদের ওখানেই চিকিৎসা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর। রাজ্যের বহু জায়গাতেই অ্যা সিমটম্যাটিক করোনা রোগীদের চিকিৎসা এরকম কোয়ারেন্টাইন সেন্টারেই হচ্ছে। কিন্তু ওখানকার গ্রামবাসীরা বুঝতে চাইছেন না। বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য দপ্তরের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করছি ।