নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে শৌচালয় তৈরির অভিযোগ

650

হেমতাবাদ: নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে শৌচালয় তৈরির অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়াল হেমতাবাদের সোনাবান্দ এলাকায়। সোমবার গ্রামবাসীরা নির্মাণকাজ আটকে দিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অতি নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে শৌচালয় নির্মাণ করা হচ্ছে। যে কোনও দিন তা ভেঙে পড়তে পারে। নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ইট, বালি, পাথর ও সিমেন্টের গুণমানও অত্যন্ত খারাপ। শিডিউল মেনেও কাজ করা হচ্ছে না। গ্রামবাসীদের দাবি, শৌচালয়ের জন্য উপভোক্তাদের কাছ থেকে টাকা চাইছে নির্মাণকারী সংস্থা।

গ্রামের বাসিন্দা লালবানু খাতুন বলেন, আমাদের বাড়িতে সরকারিভাবে শৌচালয় তৈরি জন্য বিভিন্ন সামগ্রী দিয়ে গিয়েছে নির্মাণ সংস্থার কর্মীরা। তার গুণমান অত্যন্ত খারাপ। এই সামগ্রী দিয়ে শৌচালয় নির্মাণ করা হলে আগামীতে শৌচালয় ভেঙে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাই আমরা কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। গ্রামবাসী জহরা খাতুনেরও একই অভিযোগ। তিনি বলেন, অত্যন্ত নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কর্মীরা নির্মাণকাজ শুরু করায় কাজ আটকে দিয়েছি। পাশপাশি নির্মাণ সংস্থা যে টাকা নিয়েছে, সেই টাকাও ফেরত চাওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

নিম্নমানের কাজের প্রতিবাদে সরব হয়েছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের দাবি, সরকারি অর্থ নয়ছয় করা হচ্ছে। অবিলম্বে নির্মাণকারী সংস্থার কাজ বন্ধের দাবি জানিয়েছেন তারা।  বিজেপির ২২ নং হেমতাবাদ মণ্ডল সভাপতি প্রশান্তকুমার ভৌমিক বলেন, সরকারি কাজ নিম্নমানের হচ্ছে, এই খবর পেয়েই আমরা এলাকায় আসি। সরকারি টাকা খরচ করে এইভাবে সাধারণ মানুষকে বোকা বানানো যাবে না। আমরা এই কাজ করতে দেব না। ভালো মানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করতে হবে। স্থানীয় তৃণমূল নেতা জয়নাল আবেদিন জানান, এই কাজ পঞ্চায়েত সমিতি করছে। তাই কারা কাজ করছে জানি না।

হেমতাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের উপপ্রধান নারায়ণচন্দ্র দাস বলেন, স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য অভিযোগ জানিয়েছেন। কারা এই নির্মাণকাজ করছে তা আমার জানা নেই। আমি বিডিওকে বিষয়টি জানাব।