ভোট বয়কটের হুঁশিয়ারি দিয়ে বিক্ষোভে শামিল গ্রামবাসীরা

75

রায়গঞ্জ: ভোট বয়কটের হুঁশিয়ারি দিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামবাসীরা। রায়গঞ্জ ব্লকের ৫ নম্বর শেরপুর অঞ্চলের খলসি ঘাটে আজ প্রায় শতাধিক গ্রামবাসী পাকা সেতুর দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। তাঁদের দাবি, খলসি ঘাটে সেতু না হওয়া পর্যন্ত প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ ভোট দেবেন না। আগে সেতু, তারপর ভোট, এই দাবিতে এদিন বিক্ষোভ দেখান তাঁরা।

খলসি ঘাটে কুলিক নদীর উপর নড়বড়ে বাঁশের সেতু রয়েছে। তার উপর দিয়েই প্রতিনিয়ত পারাপার করতে হচ্ছে গ্রামবাসীদের। খলসি, খোকসা, শেরপুর সহ প্রায় ১০টি গ্রামের মানুষের অস্থায়ী সাঁকোই ভরসা। অভিযোগ, দীর্ঘ ৭৩ বছর ধরে এই অস্থায়ী সেতুকে পাকা সেতু করে দেওয়ার আর্জি জানালেও জনপ্রতিনিধি থেকে প্রশাসন কেউই গুরুত্ব দেয়নি। তারই প্রতিবাদে এদিন ১০ গ্রামের কয়েকশো গ্রামবাসী সেতুর দাবিতে বিক্ষোভ দেখান এবং সেতু না হওয়া পর্যন্ত ভোট বয়কট থাকবে বলে হুঁশিয়ারি দেন।

- Advertisement -

আন্দোলনকারীদের পক্ষে কালেশ্বর বর্মন বলেন, ‘গ্রামবাসীরা দীর্ঘদিন ধরে সেতুর দাবি জানিয়ে আসলেও কারও টনক নড়েনি। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সেতু না পর্যন্ত আমরা ভোটে অংশ নেব না। তবে রাজনৈতিক দলগুলি প্রচারের ক্ষেত্রে বাধা দেওয়া হবে না।’ তিনি বলেন, ‘সাত দিন ধরে নদীর ঘাটে আন্দোলন চলবে। এরপর পঞ্চায়েত অফিস ঘেরাও এবং অনশনে বসব আমরা।’

উল্লেখ্য, খলসি ঘাটে সেতুর দাবিতে বহুদিন ধরে সরব গ্রামবাসীরা। তবে রাজনৈতিক দলগুলি এবং প্রশাসন গ্রামবাসীদের ভোট বয়কটের সিদ্ধান্ত থেকে সরিয়ে আনতে পারে কিনা, এখন সেটাই দেখার।