কারখানায় ‘সশস্ত্র’ তোলাবাজদের তাণ্ডব, উত্তেজনা

98

রায়গঞ্জ: আসবাব কারখানায় তোলাবাজদের তাণ্ডব ঘিরে উত্তেজনা। তোলা দিতে অস্বীকার করায় কারখানার মালিক সুমন সাহাকে লক্ষ্য করে গুলি করার চেষ্টার অভিযোগ। রায়গঞ্জ থানার বড়ুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের শিশগ্ৰাম এলাকার ঘটনা। এই ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

অভিযোগ, গত সাতদিন ধরে তিন লক্ষ টাকা ‘তোলা’ দাবি করে আসছিল ওই দুষ্কৃতীরা। নতুন কারখানা খোলায় মালিককে এই টাকা দিতে হবে বলেও জানায় তারা। এই নিয়ে দিন চারেক আগে মালিকপক্ষের সঙ্গে দুষ্কৃতীদের কথা কাটাকাটিও হয়। তবে এই টাকা দেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন মালিক সুমন সাহা। এরপরই মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় কুখ্যাত দুষ্কৃতী বচ্চন বর্মনের নেতৃত্বে একদল লোক কারখানায় এসে চড়াও হয়। মালিককে লক্ষ্য করে গুলি করার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। তখনই দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান কারখানায় কর্মরত শ্রমিকরা। সেখান থেকে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তবে এরমধ্যে একজন ধরা পড়ে। শুরু হয় গণধোলাই। ঘটনায় রায়গঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন কারখানার মালিক।

- Advertisement -

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। মারধরে জখম অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। বর্তমানে সেখানে পুলিশি হেপাজতে চিকিৎসাধীন রয়েছে অভিযুক্ত যুবক। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতদের নাম বিমল রায়। বাড়ি রায়গঞ্জ থানার বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের রারিয়া গ্রামে।

বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান ধনেশ্বর বর্মন বলেন, ‘শিশগ্রামে একটি ঘটনা ঘটেছে। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে।’ রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। বাকি অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।’

এদিকে, স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ, অভিযুক্ত বচ্চন বর্মন ও বিমল রায় সহ একদল দুষ্কৃতী দীর্ঘদিন ধরেই বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় তোলাবাজি করে চলছে। জমি বেচা-কেনায় মোটা টাকা আদায় করছে। ওই দুষ্কৃতীদের কাছে আগ্নেয়াস্ত্র থাকায় ভয়ে কেউ মুখ খুলতেও পারছেন না বলে অভিযোগ। ওই দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন বাসিন্দারা।