জলপাইগুড়িতে ভোকেশনাল শিক্ষকের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে চাঞ্চল্য

242

জলপাইগুড়ি ৫ ফেব্রুয়ারিঃ ভোকেশনাল শিক্ষকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল জলপাইগুড়ির  ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে (আই টি আই)। মৃত শিক্ষকের নাম অভ্রজ্যোতি বিশ্বাস। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা নাগাদ প্রতিষ্ঠানেরই একটি শ্রেণী কক্ষে তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান সহ কর্মীরা। এর পরেই কোতয়ালি থানার খবর দেওয়া হয় কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। জানা গিয়েছে অভ্রজ্যোতি বিশ্বাস আইটিআইতে ভোকেশনাল কোর্সের শিক্ষক ছিলেন। এদিন মৃত দেহের কাছ থেকে একটি সুইসাইডাল নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদিকে এই ঘটনার জন্য ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষকেই দায়ী করেছেন অভ্রজ্যোতি বিশ্বাসের সহকর্মী এবং জলপাইগুড়ি শহরের ভোকেশনাল কর্মীদের সংগঠন।  তাদের অভিযোগ এই ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষ ভোকেশনাল শিক্ষকদের ক্যাজুয়াল লিভ দেন না। কেউ ক্যাজুয়াল লিভ নিলে তার বেতন কাটা হয়। সামান্য বেতন থেকে টাকা কাটা হলে সংসার চালাতে সমস্যায় পড়তে হয়। এর আগেও ছুটি না পেয়ে অভ্রজ্যোতি স্যালাইন নিয়ে ইনস্টিটিউটে এসেছিল কাজে যোগ দিতে। তাঁর উপর মানষিক ভাবে চাপ দেওয়া হত বলে অভিযোগ তাদের। এদিন অধ্যক্ষকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান ইনস্টিটিউটের ভোকেশনাল কর্মীরা। ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ রণবীর সিংহ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘একটি ঘটনা ঘটেছে সেটা কোতয়ালী থানাকে জানানো হয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে দেখবে বিষয়টি’।
কোতয়ালি থানার পুলিশ জানিয়েছে, একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গিয়েছে। গোটা বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।