দুই বছর ধরে পানীয় জল পাচ্ছেন না পাঁচ হাজার মানুষ

407

জটেশ্বর : জটেশ্বর – খগেনহাট প্রধানমন্ত্রী গ্রামসড়ক যোজনার রাস্তা সম্প্রসারণ ও কালভার্ট তৈরির সময় পরিস্রুত পানীয় জলের পাইপ ফেটে যায়। সেই থেকেই পানীয় জলের সংযোগ বন্ধ করে দেয় জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগ। কথা ছিল সড়কের উপর নতুন কালভার্ট তৈরির কাজ শেষ হলেই পানীয় জলের পাইপলাইন চালু করা হবে। সেই রাস্তার কাজ শেষ হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত পাইপলাইন চালু করা হয়নি। যার ফলে জটেশ্বর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের আলিনগর, মিত্রপাড়ার প্রায় পাঁচ হাজার বাসিন্দা জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগের পরিস্রুত পানীয় জল পরিসেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। কয়েকজন বোতলবন্দি জল কিনে খেলেও অনেকেই অপরিস্রুত জল খাচ্ছেন। কেউ কেউ আবার কয়েক কিলোমিটার দূর থেকে জল নিয়ে আসছেন। পূজোর আগে এলাকায় পানীয় জল পরিসেবা চালু না হলে আন্দোলনে নামবেন তাঁরা।
দু-বছর আগে খগেনহাট – জটেশ্বর সড়ক সম্প্রসারণের সময় ওই এলাকার পাইপলাইন ভেঙে যায়। তারপর রাস্তা সম্প্রসারণ হয়ে গেলেই জলের পাইপলাইন সারানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সড়ক কর্তৃপক্ষ ও পিএইচই। কিন্তু দু-বছর পেরিয়ে গেলেও সেখানে পানীয় জল পৌঁছায়নি।  স্থানীয়দের অভিযোগ, সড়ক বা জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগ কেউই কথা রাখেনি। যার ফলে অপরিস্রুত জল খেয়ে অসুস্থ হচ্ছে অনেকেই।
স্থানীয় বাসিন্দা পৃথ্বীশ রায় বলেন, ‘একাধিকবার দাবি জানালেও পাইপলাইন ঠিক করা হয়নি। আমাদের দাবি দ্রুত পানীয় জল পরিসেবা চালু করতে হবে।’ মিত্রপাড়ার বাসিন্দা খোকন মিত্র বলেন, ‘১ কিলোমিটার দূর থেকে পানীয় জল সংগ্রহ করতে হচ্ছে স্থানীয়দের। অনেকে অপরিস্রুত জল খাচ্ছেন। বিষয়টি প্রশাসনের অবিলম্বে দেখা উচিত।’
জটেশ্বর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের ৪৫ নম্বর অংশের পঞ্চায়েত সদস্য জ্যোতির্ময় রায় বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ করেছিলাম। কাজ শুরুর দাবিতে আবার যোগাযোগ করব।’
জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগের আধিকারিক তরুব্রত রায় বলেন, ‘কাজটি এর মধ্যেই শুরু হবে।’

তথ্য : শান্ত বর্মন

- Advertisement -